অপরাধ ঢাকা

ঐশীকে সংশোধন কেন্দ্রে পাঠানোর নির্দেশ

Rahman Oishi20130824160939আদালত প্রতিবেদক,ঢাকা, ২৪ আগস্ট: পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) ইন্সপেক্টর মাহফুজুর রহমান ও তার স্ত্রী স্বপ্নার চ্যাঞ্চল্যকর হত্যার ঘটনায় ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে তাদের মেয়ে ঐশী রহমান (১৭)। একই দিন জবানবন্দি দেয় গৃহপরিচারিকা সুমীও।

জবানবন্দি গ্রহণ শেষে তাদের দু’জনকেই কিশোরী সংশোধন কেন্দ্রে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
শনিবার বিকেলে মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট আনোয়ার সাদাতের খাস কামরায় জবানবন্দি দেয় ঐশী ও সুমি।
জবানবন্দিতে ঐশী জানায়, নিজ হাতে বাবা-মাকে খুন করেছে সে। অন্যদিকে সুমি জানায়, লাশ সরাতে সে ঐশীকে সহযোগিতা করেছে।
কিশোরী ঐশীকে রিমান্ডে নেওয়ার ব্যাপারটি বেশ কিছুদিন ধরে সমালোচিত হয়ে আসছে। মানবাধিকার কর্মীরা বলছেন, নাবালিকা ঐশীকে কোনোভাবেই কারাগারে পাঠানো যাবে না।
উল্লেখ্য, গত ১৪ আগস্ট দিবাগত রাতে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের ইন্সপেক্টর মাহফুজুর রহমান ও তার স্ত্রী স্বপ্না রহমানকে তাদের চামেলীবাগের ভাড়া বাসায় হত্যা করা হয়। ১৬ আগস্ট সন্ধ্যায় তাদের ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
মাহফুজুর রহমান ও স্বপ্না রহমানের দু’সন্তান। মেয়ে ঐশী রহমান (১৬) ও ছেলে ঐহী রহমান (৭)। ঐশী ধানমন্ডির অক্সফোর্ড ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ও-লেভেলের শিক্ষার্থী। আর ঐহী রহমান রাজারবাগ পুলিশ লাইন স্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র।