প্রধান খবর সারাদেশ

আগামীকাল বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলার রায়

হটনিউজ ডেস্ক:

বরগুনায় দিনে-দুপুরে প্রকাশ্যে কুপিয়ে রিফাত শরীফ হত্যা মামলার রায় আগামীকাল বুধবার। প্রায় ১৫ মাসের মাথায় রায় ঘোষণার তারিখ নির্ধারণ হওয়ায় সন্তুষ্ট রিফাতের পরিবার।

দোষিদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্বজনরা। এদিকে বিবাদী পক্ষ এবং মিন্নির আইনজীবীরা ন্যায় বিচারের দাবি জানিয়েছেন।

সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়া বরগুনার রিফাত শরীফের মধ্যযুগীয় এই হত্যাকাণ্ড ২০১৯ সালে দেশের অন্যতম আলোচিত বিষয়। দিনের আলোতে কয়েকজন মিলে কুপিয়ে মেরে ফেলে রিফাতকে।

দেশজুড়ে আলোড়ন তোলা এই হত্যা মামলার বিচার কাজ শেষ। বুধবার রায় ঘোষণা করবেন আদালত। রায়ের তারিখ নির্ধারণ হওয়ায় খুশি রিফাতের স্বজনরা।

রিফাতের বাবা-মা বলছেন, ছেলেকে হারিয়েছি আদালতের প্রতি যথেষ্ট আস্থা আছে আমরা ন্যায় বিচার পাবো বলে আশা করি। প্রত্যেক অপরাধীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তারা।

মামলায় রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিসহ ১২ জন এজাহার নামীয় আসামী। আসামীপক্ষ এবং মিন্নির আইনজীবীরা চেয়েছেন ন্যায় বিচার। তারা বলেছেন, অপরাধী যেই হোক সবাই যেন ন্যায় বিচার পায়।

মামলার বিচার শেষ হওয়ায় খুশি বরগুনাবাসী এখন রায়ের অপেক্ষায়। সামাজিক যে অবক্ষয় হয়েছে এই রায়ের মাধ্যমে তা দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে বলেও আশা এলাকাবাসীর।

এরা আগে রিফাত হত্যার ঘটনায় গেল বছরের ২৭ জুন ১২ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত ৫ থেকে ৬ জনকে আসামী করে মামলা করেন রিফাতের বাবা। এর ৫ দিন পর প্রধান আসামী নয়ন বণ্ড পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়। মামলার এক নম্বর সাক্ষী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে ঘটনার ২০ দিন পর আসামী করে পুলিশ। রিফাত হত্যায় অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামীর বিচারও প্রায় শেষ পর্যায়ে।