অর্থ ও বাণিজ্য জাতীয় ঢাকা

২০১৫ পরবর্তী উন্নয়ন এজেন্ডা আন্তর্জাতিক কমর্শালা ঢাকায়

 আফিফা জামান ,ঢাকা: photo-ERD-BG-72520130824020326 ঢাকায় ‘জাতিসংঘের ২০১৫ পরবর্তী উন্নয়ন এজেন্ডা’ ও উন্নয়ন সহযোগীদের সঙ্গে ২০১১ সালে কোরিয়ার বুসানে অনুষ্ঠিত পার্টনারশিপের কর্মপরিকল্পনা বিষয়ক তিনদিনের আন্তর্জাতিক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে রোববার।

‘এশিয়া ওয়ার্কশপ অন দ্য গ্লোবাল পার্টনারশিপ ফর ইফেকটিভ ডেভলেপমেন্ট কো-অপারেশন’ শীর্ষক কর্মশালা রোববার থেকে শুরু হয়ে চলবে মঙ্গলবার পর্যন্ত।

অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (এনইসি) এ কর্মশালার আয়োজন করছে।

শনিবার শেরেবাংলা নগর এনইসি সম্মেলন-২ কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব আবুল কালাম আজাদ এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, তিনদিনের এই কর্মশালা রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে অনুষ্ঠিত হবে।
আন্তর্জাতিক এ কর্মশালায় এশিয়া ও এশীয় প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের কয়েকটি দেশ যেমন- ইন্দোনেশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, ক্যাম্বোডিয়া, লাওস, নেপাল, মঙ্গোলিয়া, মায়ানমার, আফগানিস্তান, ফিজি, পাপুয়া নিউগিনি এবং তিমুর লিস্তের প্রতিনিধিরা অংশ নিচ্ছেন। এ ছাড়াও বিভিন্ন আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থার প্রতিনিধিরা এতে অংশ নেবেন।

সচিব আবুল কালাম জানান, কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে পরিকল্পনামন্ত্রী এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) একে খন্দকার উপস্থিত থাকবেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব আবুল কালাম আজাদ।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, তিনদিনের কর্মশালায় এশীয় অঞ্চলের পরিপ্রেক্ষিতে বৈশ্বিক সহযোগিতা এবং ২০১৫ পরবর্তী উন্নয়ন এজেন্ডার রূপরেখা, এসব অঞ্চলের সাউথ-সাউথ কো-অপারেশন এবং ট্রাইঙ্গুলার কো-অপারেশনের ভূমিকা ও সম্ভাব্য রূপরেখা নিয়ে আলোচনা হবে।

এছাড়া ২০১৫ পরবর্তী সময়ে উন্নয়ন অর্থায়ন ও সহযোগিতার সম্ভাব্য ধরন ও প্রকৃতি এবং তার পরিপ্রেক্ষিতে ন্যায়সঙ্গত উন্নয়নে বাণিজ্য ও বেসরকারি খাতের ভূমিকা সম্পর্কে আলোকপাত করা হবে কর্মশালায়।

পাশাপাশি এ কর্মশালার মাধ্যমে বুসান পার্টনারশিপের নীতিমালার আলোকে এশীয় অঞ্চলের জন্য একটি সাধারণ কর্ম পরিকল্পনা (কমন প্ল্যান অব অ্যাকশান) প্রণয়নে আলোকপাত করা হবে।

কর্মশালার নেওয়া সিদ্ধান্ত ও মতামত আগামী ২০১৪ সালের মেক্সিকোতে অনুষ্ঠিত বৈশ্বিক সহযোগিতা বিষয়কমন্ত্রী পর্যায়ের আন্তর্জাতিক সভায় ‘২০১৫ পরবর্তী উন্নয়ন এজেন্ডা’ নির্ধারণ এশীয় অঞ্চলের দৃষ্টিভঙ্গি ও মতামত তুলে ধরতে সহায়তা করবে বলে মনে করে ইআরডি।

অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘আমাদের বৈদেশিক উন্নয়ন সহযোগিতা পার্টনারশিপ পাওয়ার জন্য ভয়েস রেইজ করতে হবে।’

সচিব বলেন, ‘গ্লোবাল কো-অপারেশন এমডিজি এজেন্ডা বিষয়ে আলোচনা হবে। এমডিজির যতগুলো গোলস আছে, তার মধ্যে আমরা অনেক কিছু অর্জন করেছি। পৃথিবীর গরিব দেশের মধ্যে আমরা অনেক এগিয়ে আছি। যে কাজগুলো আমরা করতে পারিনি, সেই কাজগুলো সামনে কীভাবে সম্পূর্ণ করতে পারি, সেই বিষয়ে নতুন প্ল্যান হবে। ২০২১ সালের মধ্যে আমরা মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হবো।’

তিনদিন ব্যাপী কর্মশালা সকাল সাড়ে নয়টায় শুরু হয়ে চলবে বিকেল সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত।