আন্তর্জাতিক

সিরিয়ায় হামলার জন্য প্রস্তুত আমেরিকা

8আন্তর্জাতিক : মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী চাক হ্যাগেল বলেছেন, প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা সিরিয়ায় হামলার নির্দেশ দিতে পারেন- এই সম্ভাবনাকে মাথায় রেখে আমেরিকা নিজ নৌবাহিনী এবং প্রয়োজনীয় যুদ্ধ সরঞ্জাম সিরিয়ার আশপাশে মোতায়েন করতে শুরু করেছে। মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে নিজ বিমানে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপের সময় এ কথা বলেছেন চাক হ্যাগেল। তিনি বলেন, প্রতিরক্ষা দফতরের দায়িত্ব হলো প্রেসিডেন্টকে সব ধরনের পরিস্থিতির মোকাবেলা করার উপযোগী ব্যবস্থা করে দেয়া । এরই মধ্যে সব যুদ্ধ সরঞ্জাম মোতায়েনের কাজ শেষ হয়ে গেছে এ কথা বলা হলে ঠিক হবে কি-না জানতে চাওয়া হলে হ্যাগেল বলেন, “আমি সে ধরনের কথা বলেছি বলে মনে করছি না। আমি বলেছি আমাদেরকে সব সময় প্রস্তুত থাকতে হবে। কি কি ব্যবস্থা নেয়া যেতে পারে তা প্রেসিডেন্টের সামনে তুলে ধরা হবে এবং আমাদের যুদ্ধ সরঞ্জামকে সে অনুযায়ী প্রস্তুত রাখতে হবে।
তিনি আরো বলেন, প্রেসিডেন্টকে যে ধরনের ব্যবস্থা নেয়ার সুযোগ আছে বলে জানানো হবে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার ক্ষমতা মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতরের থাকতে হবে। সিরিয়া সরকারের কথিত রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ওয়াশিংটন দেশটির বিরুদ্ধে সামরিক পদক্ষেপ নেয়ার কথা ভাবছে বলে মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগের কর্মকর্তারা মন্তব্য করার পর এ কথা বললেন চাক হ্যাগেল।
এর আগে, মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতরের কর্মকর্তারা বলেছেন, ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র সজ্জিত মার্কিন চতুর্থ যুদ্ধ জাহাজ সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় ভূমধ্যসাগর এলাকায় প্রবেশ করেছে। অবশ্য মার্কিন নৌবাহিনীকে সেনা অভিযানের প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়নি বলেও একই সঙ্গে জানানো হয়েছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতরের এক কর্মকর্তা বলেন, মোতায়েনের সময় শেষ হয়ে যাওয়া সত্ত্বেও ইউএসএস মাহানকে ওই এলাকায় অবস্থান করতে বলা হয়েছে। এর আগে, আমেরিকার ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের নরফোকে নিজ ঘাঁটিতে ওই জাহাজের ফিরে যাওয়ার কথা ছিল।