অর্থ ও বাণিজ্য কৃষি ঢাকা

কাঁচামরিচে আবারও শুল্ক আরোপ হচ্ছে

Karwan-Bazar20130823094207হটনিউজ২৪বিডি.কম,নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা, ২৩ আগস্ট: কাচাঁমরিচ আমদানিতে আবারও শুল্ক আরোপ করতে যাচ্ছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। সম্প্রতি এনবিআরের এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। এর আগে জুলাইয়ে এই নিত্যপণ্য থেকে শুল্ক প্রত্যাহার করা হয়েছিল।
এনবিআরের বৈঠক সূত্রে জানা যায়, বর্তমানে কাচাঁমরিচের দাম স্বাভাবিক। তাই পণ্যটিতে আমদানি শুল্ক সুবিধা অব্যহত রাখা ঠিক হবে না বলে বৈঠকে মত আসে। তাছাড়া এবারের বাজেটে রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জন এমনিতেই একটি বড় চ্যালেঞ্জ।
এনবিআরের এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা হটনিউজকে জানান, কাচাঁমরিচের বর্তমান দাম কমে এসেছে। তাই আমরা পূনরায় শুল্ক আরোপ করতে চাচ্ছি। এ সিদ্ধান্ত বাণিজ্য ও অর্থ মন্ত্রণালয়কে ইতিমধ্যে জানিয়েছি। শীঘ্রই এ বিষয়ে সংশোধিত এসআরও (বিধিবদ্ধ আদেশ) ইস্যু করবে এনবিআর।
এর আগে গত ১৮ জুলাই সরকারী বিধিবদ্ধ এক আদেশে ডিসেম্বর পর্যন্ত কাচাঁমরিচের ওপর থেকে ৯২.৩০% শুল্ক প্রত্যাহার করেছিল এনবিআর। মূলত: রোজায় কাঁচামরিচের দাম সহনীয় রাখতে আমদানিতে অধিকাংশ শুল্ক প্রত্যাহার করা হয়েছিল।
রোজার আগে এই পণ্যটি কেজি প্রতি ৫০ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। কিন্তু রোজা আসার সঙ্গে সঙ্গে তা হু হু করে বাড়তে থাকে। এক পর্যায়ে ভোক্তাকে ২০০ টাকা কেজি দরে কাঁচামরিচ কিনতে হয়েছে। এ অবস্থায় কাঁচামরিচের বাজার অস্থির হয়ে ওঠে।
ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই ভোক্তাদের স্বার্থ সংরক্ষণে কাঁচামরিচের শুল্ক প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছিল। ওই দাবির প্রেক্ষিতে শুল্ক প্রত্যাহার করা হয়েছিল।
এখন আবারও আরোপ হলে ২৫% শুল্ক, সম্পূরক শুল্ক ২০%. রেগুলেটারি ফি ১৫%, অগ্রিম আয়কর ৫% এবং ৪% অগ্রিম ভ্যাটসহ মোট ৯২,৩০ % শুল্ক গুনতে হবে আমদানিকারকদের।
শুল্ক সুবিধা প্রত্যাহারের বিষয়ে এফবিসিসিআই ভাইস প্রেসিডেন্ট হেলাল উদ্দিন জানান, এ ধরনের সিদ্ধান্ত স্থানীয় বাজারে কৃষককে সুরক্ষা দেবে। এর আগে আমরা এনবিআরকে অনুরোধ করেছিলাম দাম স্বাভাবিক হলে যেন পূনরায় শুল্ক বাড়িয়ে দেয়া হয়।