ঢাকা রাজনীতি

সোহরাওয়ার্দী উদ্যান থেকে আ. লীগের নির্বাচনী প্রচারণা

Awami league20130823102108হটনিউজ২৪বিডি.কম,ঢাকা, ২৩ আগস্ট: ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানসহ রাজধানীতে দু’টি জনসভা দিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করছে আওয়ামী লীগ। অন্যটি হবে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে। সভা দুটির একটি আয়োজন করছে মহানগর আওয়ামী লীগ। অন্যটি ছাত্রলীগ।
সংগঠন দুটির শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে কথা বলে দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতির বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।
৩০ আগস্ট সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের জনসভাটি করছে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ ৩১ আগস্ট আয়োজন করছে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরের জনসভাটি।
দলীয় সূত্রগূলো জানিয়েছে, আগামী পহেলা সেপ্টেম্বর থেকে সারাদেশে সাংগঠনিক সফর শুরু হবে আওয়ামী লীগের। সফরকালে নির্বাচনী প্রচার চালাবে ১৬ টি সাংগঠনিক টিম। ১০ দিন ব্যাপী চলবে এই সফর।
সূত্রগুলো আরো জানায়, গত ১৮ আগস্ট দলের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় নির্বাচনী প্রচার শুরুর সিদ্ধান্ত হয়। আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর ১৩ জন এবং উপদেষ্টা পরিষদের ৩ সদস্যের নেতৃত্বে মোট ১৬ টি টিম মাঠে নামবে।
সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, আবদুল লতিফ সিদ্দিকী, কাজী জাফর উল্লাহ, মোহাম্মদ নাসিম, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক এবং ডা. দিপু মণি এই সাংগঠনিক টিমগুলোর নেতৃত্ব দেবেন।
এই কর্মসূচির সমন্বয় করবেন বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা।
সফরের বিষয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সাংগঠনিক টিমগুলোর খসড়া প্রস্তুত হয়েছে। দু’একদিনের মধ্যেই টিমগুলো চূড়ান্ত হয়ে যাবে।
দলের একটি বিশ্বস্ত সূত্র জানায়, রাজশাহী বিভাগে সফরে যাওয়ার কথা ছিল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে সিলেট বিভাগে যাওয়ার নির্দেশ দেন।
আওয়ামী লীগের একটি দায়িত্বশীল সূত্র আরো জানায়, আগামী বৃহস্পতিবার এই টিমগুলোর তালিকা চূড়ান্ত করা হতে পারে। একই সঙ্গে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদকদের নামের তালিকায়ও কিছু পরিবর্তন আসবে।
এদিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার জনসভা সফল করতে ইতিমধ্যে মহানগর আওয়ামী লীগ এবং ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।
মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন, ৩০ আগস্ট সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শোক দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত জনসভাকে সফল করতে বর্ধিত সভা এবং ঢাকার এমপিদের সঙ্গে বৈঠক করা হয়েছে। দায়িত্মব দেয়া হয়েছে মহানগর আওয়ামী লীগের বিভিন্ন ওয়ার্ড নেতাদের।
ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিবিজড়িত সোহরাওয়ার্দী উদ্যানকে সবসময় বিশেষ গুরুত্বের সাথে দেখে আওয়ামী লীগ। এ বছর শোক দিবসের আলোচনার পাশাপাশি মূলত আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচার শুরু হচ্ছে এই সভা থেকে। জনসভায় শেখ হাসিনা বর্তমান সরকারের সাফল্য তুলে ধরে বক্তব্য রাখবেন। বক্তব্যকে গাইডলাইন হিসেবে নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতারা সারাদেশে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখবেন।