অপরাধ রাজশাহী শিক্ষাঙ্গন

উন্নত চিকিৎসার জন্য তুহিনকে ঢাকায় প্রেরণ

Tuhin-0023020130822201619 রাজশাহী, ২৩ আগষ্ট: শিবিরের হামলায় গুরুতর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম তৌহিদ আল হোসেন ওরফে তুহিনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

রাত ১২ টার পর তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। এর আগে রামেক হাসপাতালে প্রাথমিকভাবে তার একটি অপারেশান হলেও পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকরা তুহিনকে ঢাকায় নেওয়ার পরামর্শ দেন।

বৃহস্পতিবার রাত ১০ টার দিকে ক্যাম্পাসে নৃসংশভাবে তুহিনের হাত ও পায়ের রগ কেটে দেয় শিবির সন্ত্রাসীরা। এর আগে তারা তুহিনকে লোহার রড দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে। তিনি মাথায়ও গুরুতর আঘাত পেয়েছেন। ছাত্রলীগ নেতা তুহিনের ওপর হামলার অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বিনোদপুর ও মেহেরচ-ী এলাকা থেকে শিবিরের ১০ ক্যাডারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বোয়ালিয়া থানায় নিয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

ছাত্রলীগ ও ক্যাম্পাস সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দ আমীর আলী হলে ছাত্রলীগের আলোচনাসভা ছিল। ওই কর্মসূচি শেষে রাত ১০টার দিকে কয়েকজন নেতাকর্মীকে নিয়ে পায়ে হেঁটে মাদার বখশ হলের দিকে যাচ্ছিলেন তুহিন। সঙ্গে ছিলেন সমাজসেবা সম্পাদক শাওন।

এসময় ৮ থেকে ১০ জনের একটি সশস্ত্র দল কয়েকটি মোটরসাইকেলে করে ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রথমে তাদের লক্ষ্য করে ককটেল নিক্ষেপ করে। পরে কয়েক রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে। সন্ত্রাসীরা পেছন থেকে লোহার রড দিয়ে তুহিনের মাথায় আঘাত করে। অচেতন হয়ে মাটিতে পড়ে গেলে সন্ত্রাসীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার ডান পায়ের ও ডান হাতের রগ কেটে দেয়।
তাদের অস্ত্রের আঘাতে তুহিনের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ও ডান কানের কাছে বড় ধরণের জখম হয়েছে। একই ঘটনায় গুলিবিদ্ধ ছাত্রলীগ নেতা শাওন চিকিৎসাধীন অবস্থায় জানান, হামলাকারী সন্ত্রাসীরা সকলেই শিবিরের ক্যাডার। শিবির সন্ত্রাসীরা হামলা শেষে বিনোদপুর গেট দিয়ে পুলিশের সামনে দিয়েই বের হয়ে যায়। শিবিরের হামলার মুল লক্ষ্যই ছিল ছাত্রলীগ নেতা তুহিন- একথা জানিয়েছে রাবি শাখা ছাত্রলীগ।

এদিকে ঘটনার পরপরই খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদের উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে তুহিনের শরীরে অস্ত্রোপচার করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ২০ জুলাই ছাত্রলীগ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কাউন্সিলে মিজানুর রহমান সভাপতি এবং এস এম তৌহিদ আল হোসেন ওরফে তুহিন সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। তুহিন বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী।