সারাদেশ

সৎ মায়ের হাতে শিশু খুন,রোমহর্ষক বর্ণনা

হটনিউজ ডেস্ক:

ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলায় সৎ মায়ের বিরুদ্ধে লাবনী আক্তার (৭) নামে এক শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার ঢাকুয়া ইউনিয়নের ভালকী গ্রামে গতকাল শনিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় নিহত শিশুর বাবা আবু চান মিয়া তারাকান্দা থানায় স্ত্রী শামসুন্নাহারকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ সৎ মা শামসুন্নাহারকে (৩৮) গ্রেপ্তার করে থানায় ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করলে শিশু হত্যার রোমহর্ষক বর্ণনা দেন। এরপর পুলিশ অভিযুক্তকে রবিবার আদালতে পাঠিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ময়মনসিংহ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন শামসুন্নাহার।

তারাকান্দা থানা ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, ঢাকুয়া ইউনিয়নের ভালকী গ্রামের আবু চান মিয়ার প্রথম স্ত্রী প্রায় ৬ বছর আগে মারা যান। প্রথম স্ত্রীর রেখে যাওয়া তিন সন্তানের মধ্যে লাবনী আক্তার সর্বকনিষ্ঠ মেয়ে। কয়েক বছর আগে শামসুন্নাহারকে বিয়ে করেন আবু চান মিয়া। পেশায় তিনি দিনমজুর। শামসুন্নাহারেরও পূর্বের সংসারের দুই সন্তান ছিল। চান মিয়া দরিদ্র হওয়ায় সন্তানদের তেমন খোঁজখবর নিতে পারতেন না। শনিবার রাতে বাড়িতে এসে লাবনীকে না দেখতে পেয়ে স্ত্রীর ওপর তার সন্দেহ হয়। পরে নিজ ঘরে সন্তানের রক্তমাখা লাশ উদ্ধার করেন তিনি।

স্থানীয়দের সহায়তায় চান মিয়া তারাকান্দা থানার পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ হত্যায় জড়িত সন্দেহ শামসুন্নাহারকে গ্রেপ্তার করে থানায় এনে জিঞ্জাসাবাদ করলে তিনি হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। শামসুন্নাহার পুলিশকে জানিয়েছেন, পথের কাঁটা দূর করতে শিশুটিকে হত্যা করেছেন তিনি।

তারাকান্দা থানার পুলিশ জানিয়েছে, নিহত শিশুর গলায় দাগ রয়েছে। শামসুন্নাহারের জবানবন্দি অনুযায়ী হত্যাকারী শামসুন্নাহারের হাতে কামড়ের চিহ্ন রয়েছে।

ওসি আবুল খায়ের জানান, এ ঘটনার সাথে জড়িত শামসুন্নাহারকে দ্রুত সময়ে গ্রেপ্তার করে তার জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে আরো তদন্ত চলছে।