ঢাকা রাজনীতি

মদন বি.এন.পিতে বিভক্তির আভাস

images (7)মদন (নেত্রকোণা) থেকে নুরুল হক রুনু: নেত্রকোণা জেলার মদন উপজেলার বি.এন.পির মধ্যে আগামী ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থীতা নিয়ে দ্বন্দের আভাস পাওয়া যাচ্ছে। রবিবার সন্ধায় মদন পৌর বি.এন.পির সাবেক সভাপতি ও বর্তমান পৌর মেয়র দেওয়ান মোদাচ্ছের হোসেন শফিক নিজ বাসভবনে বসে কয়েকজন সাংবাদিকদের সাথে আলাপ চারিতায় মদন উপজেলার বি.এন.পির রাজনীতি নিয়ে কথা বলেন এবং সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর কারাবন্দী থাকায় তার আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে সংশয় রয়েছে বলে বি.এন.পির প্রার্থীতা সংকটে পড়ার আশঙ্কা থাকায় নেত্রকোণা-৪ আসনে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে কথা বলেন। সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর যদি আইনী যথাযথ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বেরিয়ে এসে তিনি নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করতে পারেন তাহলে অনেকেই দলীয় মনোনয়নের জন্য প্রার্থী হবেন বলে মত প্রকাশ করেন। সাংবাদিকদের কাছে দেওয়ান মোদাচ্ছের হোসেন শফিক নিজেও প্রার্থী হওয়ার সম্ভাব্যতা প্রকাশ করে মতামত জানতে চান। এর পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার বিকেলে উপজেলা ও পৌর বি.এন.পির পক্ষ থেকে দলীয় কার্যালয়ে এস সংবাদ সম্মেলনে দেওয়ান মোদাচ্ছের হোসেন শফিককে দলত্যাগী নেতা হিসেবে অবাঞ্চিত ঘোষনা করেন এবং সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামন বাবর ছাড়া নেত্রকোণা-৪ আসনে কাউকে বি.এন.পির প্রার্থী হিসেবে মেনে নেওয়া হবেনা বলে ঘোষনা দেন। এব্যাপারে দেওয়ান মোদাচ্ছের হোসেন শফিক এর কাছে দল ত্যাগের বিষয়ে জানতে চাইলে, তিনি জানান, বিগত ১/১১ আমার ব্যক্তিগত সমস্যার জন্য বি.এন.পির জেলা কমিটির নিকট আমি এক পদত্যাগ পত্র দাখিল করি। কিন্তু অদ্যাবধি পর্য্নত জেলা কমিটি আমার পদত্যাগপত্র গ্রহণের স্বপক্ষে আমাকে লিখিত উত্তর প্রদান করেনি। বিগত ২০০৮ সালে ৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বি.এন.পির দলীয় মনোনীত প্রার্থী ল্যাঃ কর্নেল অবঃ আতিকুর রহমান নির্র্বাচনে অংশ নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর এর বিশাল কর্মী বাহিনীর কারনে যাচ্ছেতাই ভাবে বি.এন.পির মনোনীত হওয়া সত্বেও হেরে যান। তখন বি.এন.পির মনোনীত পরজিত প্রার্থীর কাছে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে নেত্রকোণা-৪ আসনে তাকে যারা ভোট দিয়েছে তারাই প্রকৃত বি.এন.পির নেতাকর্মী বলে মত প্রকাশ করেন। মূলকথা নেত্রকোণা-৪ আসনে দলের চেয়ে ব্যক্তির আদর্শই বড় বলে তিনি মত প্রকাশ করেন।