আন্তর্জাতিক ঢাকা

ব্রাদারহুডকে নিষিদ্ধের প্রস্তাব

 

images (7)হটনিউজ,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,ঢাকা, ১৮ আগস্ট:  মিশরের সেনা-সমর্থিত অস্থায়ী সরকারের একজন মুখপাত্র শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে ব্রাদারহুডকে নিষিদ্ধের প্রস্তাব দিয়েছেন। খবর বিবিসির।
মুখপাত্র বলেন, মুসলিম ব্রাদারহুডের পক্ষে আর কোনভাবেই ক্ষমতায় ফেরা সম্ভব নয়।
তিনি বলেন, মুসলিম ব্রাদারহুডকে বরঞ্চ নিষিদ্ধ করার কথা বিবেচনা করা হচ্ছে।
এছাড়াও মিশরের অস্থায়ী প্রধানমন্ত্রী হাজেম বিলাউয়ি তার এক বিবৃতিতে বলেছেন,‘সরকার আপোষ মীমাংসার পথে যাবার কথা ভাবছিল। কিন্তু যাদের হাতে রক্ত তাদের সাথে আর কোন আপোষ হতে পারে না।
যারা রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অস্ত্র ধরে, আইন ভঙ্গ করে তাদের সাথে কোন আপোষ নয়।’
এদিকে মিশরের রাজধানী কায়রোর কেন্দ্রে আল ফাতাহ মসজিদে মুসলিম ব্রাদারহুড কর্মীরা শুক্রবার থেকে অবস্থান নিয়েছিল। গোলাগুলির পর সেই মসজিদের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। এসময় অসংখ্য বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়।
নিরাপত্তা বাহিনী মসজিদে ঢোকার আগে সেখানে প্রচন্ড গোলাগুলির শব্দ শোনা যায়।
টেলিভিশন ফুটেজে দেখা গেছে, নিরাপত্তা বাহিনী মসিজদটির প্রধান মিনার লক্ষ্য করে গুলি চালাচ্ছে। তবে সরকার বলছে, মিনারের ওপর থেকে পুলিশের দিকে গুলি করা হলে তার জবাবে গুলি ছোঁড়া হয়।
মসজিদের বাইরে নিরাপত্তা বাহিনীর সাথে দিনভর মোরসি বিরোধী বহু লোকজনকে মুসলিম ব্রদারহুডের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে শোনা যায়।
শুক্রবার জুমার নামাজের পর নিরাপত্তা বাহিনীর সাথে সংঘর্ষ শুরু হলে নারী পুরুষ সহ এক হাজারেও বেশি মুসলিম ব্রাদারহুডের সমর্থক ঐ মসজিদের ভেতর আশ্রয় নেয়।
পুলিশ ও সৈন্যদের হুঁশিয়ারিতে অনেকে মসজিদ থেকে বেরিয়ে গেলেও, একশরও বেশি লোক কোনোভাবেই বেরুতে রাজী হচ্ছিল না।