অপরাধ ঢাকা

সব মামলায় জেসমিনের জামিন বাতিলে আবেদন দুদকের

 Jasmin-sm2013081303302020130818004445স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,হটনিউজ২৪বিডি.কম,ঢাকা: প্রতি মাসে ১শ’ কোটি টাকা করে শোধ করার শর্তে বিচারিক আদালত থেকে জামিন পাওয়া হলমার্ক গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর মাহমুদের স্ত্রী জেসমিন ইসলামের জামিন বাতিলে হাইকোর্টে আবেদন করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তিন দফায় মোট ১১টি মামলার সব ক’টিতেই জামিন বাতিল চাওয়া হয়েছে।

রোববার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় ৮টি মামলায় জামিন বাতিল চেয়ে আবেদন করেন দুদকের আইনজীবী অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান। এর আগে গত ১৩ আগস্ট ১টি ও ১৪ আগস্ট আরও ২টি মামলায় জামিন বাতিল চেয়ে আবেদন করেন তিনি।

খুরশীদ আলম খান জানান, হলমার্ক কেলেঙ্কারির ঘটনায় ১১টি মামলা হয়। গত ৪ আগস্ট জেসমিন ইসলাম প্রতিমাসে ১শ’ কোটি টাকা করে শোধ করার শর্তে বিচারিক আদালত থেকে সবগুলো মামলায় জামিন পান। সবগুলো মামলায় জেসমিন ইসলামের জামিন বাতিল চেয়ে পর্যায়ক্রমে হাইকোর্টে আবেদন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ৪ আগস্ট দেশের ইতিহাসে বৃহত্তম ঋণ কেলেঙ্কারির ঘটনায় দুদকের দায়ের করা ১১ দুর্নীতি মামলায় জেসমিন ইসলামকে জামিন দেন ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ জহুরুল হক।

জামিনের শর্ত হিসেবে আদালত আদেশ দেন, ঋণ কেলেঙ্কারির মাধ্যমে হলমার্ক গ্রুপ যে ২৬শ’ কোটি টাকা দুর্নীতি করে হাতিয়েছিল, তা প্রতি মাসে ১শ’ কোটি টাকা করে ২৬ মাসে পরিশোধ করতে হবে।

এর আগে গত ৭ ফেব্রুয়ারিও জেসমিন ইসলামকে জামিন দেন একই আদালত। কিন্তু ১০ ফেব্রুয়ারি এ জামিন আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট করা হলে ১১ ফেব্রুয়ারি জেসমিন ইসলামের জামিন কেন বাতিল করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। এছাড়াও ১১ মামলায় জামিনের নথিপত্রও তলব করেন হাইকোর্ট।

পাশাপাশি জেসমিন ইসলাম যাতে দেশত্যাগ না করতে পারেন, সে জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন। ১৮ ফেব্রুয়ারি জজ জহুরুল হককে হাইকোর্টে হাজির হতে নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে জামিনের বিষয়ে ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য ওই আদালতের প্রসিকিউটরকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

ওই দিনই বিচারিক আদালতের জজ জহুরুল হক জেসমিন ইসলামের জামিন আদেশ বাতিল করেন। এরপর হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে জেসমিন ইসলাম আপিল বিভাগে আবেদন করেন। পরে আপিল বিভাগে তার এ আবেদন ও হাইকোর্টে তার জামিনের আবেদন নামঞ্জুর হয়।

গত বছরের ১৭ অক্টোবর সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় মানিকগঞ্জ সার্কিট হাউজের পেছনে বেওথা রোডের ১০ নম্বর বাসা থেকে জেসমিনকে আটক করে ৠাব।

এরপর তাকে ১১ মামলার মধ্যে রমনা থানার ০৮(১০)১২ এবং ৯(১০)১২, ১০(১০)১২ নম্বর মামলায় কয়েক দফায় ১৩ দিনের রিমান্ডে নেয় দুদক।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৪ অক্টোবর হলর্মাক গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর মাহমুদ ও তার স্ত্রী চেয়ারম্যান জেসমিন ইসলামসহ মোট ২৭ জনকে আসামি করে রূপসী বাংলা হোটেল শাখা থেকে মোট দুই হাজার ৬৮৬ কোটি ১৪ লাখ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগে ১১টি মামলা দায়ের করে দুদক।

আসামিদের মধ্যে হলমার্কের ৭ জন এবং সোনালী ব্যাংকের ২০ জন কর্মকর্তা রয়েছেন।

জেসমিন ইসলামের বিরুদ্ধে ১১টি মামলায় ১৫ কোটি ৬৪ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়।