অপরাধ ঢাকা প্রধান খবর

নিহত পুলিশ দম্পতির মেয়ে ঐশীর আত্মসমর্পণ

Oishi-L20130817104133

নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা, ১৭ আগষ্ট:  রাজধানীতে খুন হওয়া পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক মাহফুজুর রহমান ও স্ত্রী স্বপ্না রহমানের মেয়ে ঐশী রহমান (১৬) পল্টন থানায় আত্মসমর্পণ করেছে।
শনিবার দুপুরে সে আত্মসমর্পণ করে। পরে ঐশীকে গোয়েন্দা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম সরোয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ঐশির পারিপার্শ্বিক অবস্থা দেখে ‍পুলিশ আগেই ধারণা করে, সে তার বাবা-মাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। তবে কি কারণে তাদের হত্যা করা হয়েছে তা এখনও জানা যায় নি। ঐশীকে এখন গোয়েন্দা পুলিশের হেফাজতে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
পুলিশ জানায়, মেয়ে ঐশী ধানমন্ডির একটি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের ও লেভেলের ছাত্রী। তার ভাই ঐহী রাজারবাগের একটি স্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণীতে পড়ে। গৃহকর্মী মোসাম্মত সুমির (১১) এখনও খোঁজ মেলেনি।
পুলিশ পরিদর্শক মাহফুজুর এসবির রাজনৈতিক শাখায় কর্মরত ছিলেন। চামেলীবাগে ‘চামেলী ম্যানশন’ নামের বাড়ির ছয়তলার একটি বাসায় তিনি স্ত্রী, মেয়ে, ছেলে ঐহী রহমান (৮) ও গৃহকর্মীকে নিয়ে থাকতেন তিনি।
পল্টন থানার পুলিশ শুক্রবার বিকেলে বাসার দরজা ভেঙে শয়নকক্ষের বাথরুম থেকে মাহফুজুর-স্বপ্না দম্পতির লাশ উদ্ধার করেন। রক্তাক্ত লাশ দুটি কাপড় দিয়ে মোড়ানো ছিল। তাঁদের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। কাপড় মোড়ানো অবস্থায় দুটি বঁটি এবং ওই শয়নকক্ষে ছড়ানো কয়েকটি ছুরি উদ্ধার করা হয়। ঐশী ও তার বাবা-মায়ের ঘরের বিছানার চাঁদর, আসবাব ও কাপড়চোপড় তছনছ অবস্থায় ছিল।
এদিকে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ ও গোয়েন্দা পুলিশ যৌথভাবে মামলাটির তদন্ত করছে।