ঢাকা বিনোদন

চক দের চেয়ে চেন্নাই বানানো কঠিন: শাহরুখ

1376565463.হটনিউজ বিনোদন ডেস্ক : টানা দু’মাসের ‘কী হয়, কী হয়’ উৎকণ্ঠা আর চোখে-মুখে নেই। নিজেই স্বীকার করছেন সিগারেটটাও কম খেয়েছেন রোববার বিকেল থেকে। আর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার, ব অফিসে এত টাকা কামানোর পর সেটা কী ভাবে খরচ করবেন তা-ও ভেবে ফেলেছেন কিং খান। টাকা আমাকে আর সে ভাবে এতটা হিট করে না। ২২ বছরে ৫৫টা ছবিতে কাজ করার পর, সেটা হওয়ার কথাও নয়। ‘চেন্নাই এপ্রেস’ থেকে যে টাকা আসবে সেটা দিয়ে ছোট বাজেটের কয়েকটা ‘মিনিংফুল’ সিনেমা বানাব এবার,গত মঙ্গলবার দুপুরে দিল্লির ক্রাউন প্লাজা হোটেলে বসে বলছিলেন শাহরুখ খান।‘মিনিংফুল’ সিনেমা বানাতে চান ঠিকই। কিন্তু এটা মোটেই মানতে চান না যে, ‘চেন্নাই এপ্রেস’ ‘মিনিংফুল’ সিনেমা নয়। সমালোচকরা কিন্তু কেউই ‘চেন্নাই’-কে ভালো ছবি বলেননি। কিন্তু শাহরুখের নিজস্ব যুক্তি বলছে, �দেখুন, আমি যথেষ্ট পড়াশোনা করি। আমি জানি পৃথিবীতে কী হচ্ছে। এত কিছু জেনেই বলছি, ‘চেন্নাই এপ্রেস’য়ের মতো সিনেমা বানানোই সবচেয়ে শক্ত। ‘চক দে ইন্ডিয়া’ বানানো সহজ।� প্রথম সপ্তাহান্তে ১০০ কোটি কামানোর পর গত সোমবারেও ‘চেন্নাই এপ্রেস’-এর অশ্বমেধের ঘোড়া থামেনি। গত সোমবার শুধু ভারতেই ১৩ কোটি টাকার ব্যবসা করেছে ছবিটি।কিন্তু এ রকম একটা ছবি যে সমালোচকদের মনঃপূত হয়নি, তাতে অবাকও নন এসআরকে। আরে, বড্ড বেশি সমালোচক আমাদের দেশে। সমালোচনা লেখার আগেই উডি অ্যালেন বা পেদ্রো আলমাদোভরের ছবির সঙ্গে কী ভাবে তুলনা করা যায়, তাই নিয়ে চিন্তা করে। ‘চেন্নাই এপ্রেস’ যে আলমাদোভরের সিনেমা নয়, সেটা আমার থেকে ভালো আর কে জানে? নিজের পরিচিত ঢঙে ব্ল্যাক কফি আর সিগারেট খেতে খেতে কেকেআর মালিক বলে চলেন, �আমাদের এখানকার সমালোচকরা ভাবে, শুধু ইংরেজি সিনেমার ডিভিডি দেখলেই ভালো সমালোচনা করা যায়। ওরা জানে না, ভারতে বিদেশি সিনেমার যেকোনো ডিভিডি প্রথম পৌঁছায় আমার বাডড়তে। আমার হলিউডের বন্ধুরা আমার জন্য পাঠায়। উডি অ্যালেন বা আলমাদোভর আমি ওদের থেকে কম বুঝি না।অফিসের মুকুট ফেরত পেয়ে কিং খান যে আবার তার পুরনো মেজাজে, গত মঙ্গলবারের দিল্লি ছিল তারই ‘ফার্স্ট লুক’। সমালোচকদের পাশাপাশি সংবাদমাধ্যমকেও হালকা সমালোচনা করতে ছাড়েননি শাহরুখ। �দু’টো জিনিসে আমি বিরক্ত। যেভাবে মিডিয়াতে বলা হলো, আমি আমার সন্তানের লিঙ্গ নির্ধারণ করাতে চেয়েছি, সেটা সম্প�র্ণ ভুল। আর দ্বিতীয়টা হলো, ইফতার পার্টিতে সালমানকে নিশ্চয়ই ‘হাগ’ করেছি আমি। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, আমি ‘করণ অর্জুন ২’তে অভিনয় করব!� বলেই চোখ টিপলেন শাহরুখ।বরং সিক্যুয়েল করলে ‘ডন ৩’ করতেই আগ্রহী ডন-২। ‘ডন র্ফ্যানচাইজিটা আমার ভীষণ ভালো লাগে। এটাই বোঁধহয় পৃথিবীর একমাত্র র্ফ্যানচাইজি যেখানে বাজে একটা লোক যা কিছু করতে পারে। আর তাতে দর্শক আপত্তি করে না,� হেসে বলেন শাহরুখ। তার কথা থেকে স্পষ্ট, শাহরুখ ‘চেন্নাই এপ্রেস’কে পিছনে ফেলে এখন সামনের ‘স্টেশন’য়ের দিকে তাকাতে চান। �চেন্নাই এপ্রেস’, রেকর্ড ওপেনিং সবটাই আজকে অতীত। পরের মাসে ফারহা খানের নতুন ছবি ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’য়ের শ্যুটিং শুরু করছি। সূত্র: ওয়েবসাইট।