অপরাধ ঢাকা

অধিকারের আদিল কারাগারে

আদালত প্রতিবেদক : মানবাধিকার সংগঠন ‘অধিকার’ সম্পাদক আদিলুর রহমান খান শুভ্রকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। images (2)একই সঙ্গে শুভ্র’র ডিভিশন চেয়ে করা আবেদনও খারিজ করে দেয় হয়েছে। গতকাল ঢাকার মহানগর হাকিম মোস্তফা শাহরিয়ার খান এ আদেশ দেন। ডিভিশন চেয়ে করা আবেদন খারিজ করে বিচারক তার আদেশে উল্লেখ করেন,‘ডিভিশন দেয়ার বিষয়ে করা আবেদন মঞ্জুর করার ক্ষমতা এই আদালতের নেই। যে কারণে এ আবেদন খারিজ করা হলো।’ গত সোমবার আদিলের রিমান্ডের আদেশ স্থগিত করে হাইকোর্ট। একইসঙ্গে আদিলকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেয় আদালত। হাইকোর্টের সেই আদেশ অনুযায়ী তদন্ত কর্মকর্তা ডিবির পরিদর্শক আশরাফুল ইসলাম শুভ্রকে গতকাল আদালতে হাজির করেন। এ সময় তার আইনজীবী আসাদুজ্জামান আদালতকে বলেন,‘ আদিল কেবল একজন মানবাধিকার কর্মীই নন তিনি সুপ্রীম কোর্টের একজন আইনজীবী। তিনি সাবেক ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তার সামাজিক মর্যাদা বিবেচনা করে শুভ্রকে প্রথম শ্রেণীর কারাবন্দি (ডিভিশন) হিসেবে রাখার আদেশ দেয়া হোক।’ শুনানি শেষে বিচারক ডিভিশনের এ আবেদন খারিজ করেন । হেফাজত ইসলামের সমাবেশে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে নিহতের সংখ্যা নিয়ে কাল্পনিক তথ্য প্রকাশের অভিযোগে গত ১০ আগস্ট আটক করে ডিবি পুলিশ। পরদিন গত রোববার আদিলকে পাঁচ দিন রিমান্ডে নেয়ার অনুমতি দেয় আদালত। রাষ্ট্রপক্ষে শুভ্রকে দশ দিন রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করা হয়। গত ১০ জন মানবাধিকার সংস্থা অধিকার একটি তথ্যানুসন্ধ্যান প্রতিবেদন প্রকাশ করে। সেখানে দাবি করা হয়, ৫ ও ৬ মে মতিঝিলের শাপলা চত্বরে অভিযানে শত শত হেফাজতকর্মী নিহত হয়েছেন। প্রতিবেদনে ৬১ জনের প্রাণহানি হয়েছে বলেও প্রতিবেদনে বলা হয়। এ প্রতিবেদন প্রকাশের পর গত ১০ জুলাই তথ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সেই তথ্যানুসন্ধান প্রতিবেদন চেয়ে অধিকারের কাছে চিঠি পাঠানো হয়। প্রতিবেদনে উল্লেখিত নিহতের সংখ্যা নিয়ে অধিকারের সুনির্দিষ্ট কোনও তথ্য প্রমাণ দেখাতে পারেনি।