অপরাধ বরিশাল

বর্বর নির্যাতনের শিকার গৃহবধু শাহিনুর স্বামী সন্তান নিয়ে দিশাহারা

Lp_jhenidohe-shishuনিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া, ১২ আগস্ট ॥ স্বামী জাহাঙ্গীরকে বেধড়ক মারধরের কবল থেকে রক্ষা করতে গিয়ে বর্বর নির্যাতনের শিকার হয়েছেন গৃহবধু শাহিনুর বেগম। তার হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে এমনকি বাম স্তন কামড়ে ক্ষত করে দিয়েছে। এখন ক্ষতস্থানে ঘাঁয়ের সৃষ্টি হয়েছে। কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি হওয়ায় সেখানে গিয়েও ভাড়াটে সন্ত্রাসী লাগিয়ে হাসপাতাল থেকে বের করে দেয়ার জন্য দিনের বেলা হুমকি দেয়া হয়েছে। আপন দেবর বশির হাওলাদার, জাফর হাওলাদার, জা খাদিজা বেগম, শাশুড়ি জাহানারা বেগম এমন বর্বর ঘটনাটি ঘটিয়েছে। মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের আলীগঞ্জ গ্রামে এই ঘটনার প্রতিকার চাইতে শাহিনুর কলাপাড়া উপজেলা জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে ৭ আগস্ট একটি মামলা করেন। আদালত সকল আসামীদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন আসামী গ্রেফতার হয়নি। ঘুরে বেড়াচ্ছে প্রকাশ্যে। উল্টো জাহাঙ্গীর, তার স্ত্রী নির্যাতিতা শাহিনুর ও তার মাদ্রাসা পড়–য়া অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র কিশোর মাসুমকে আসামী করে কলাপাড়া থানায় একটি মিথ্যা মামলা করা হয়েছে। এমনকি গ্রেফতারী পরোয়না ভুক্ত কোন আসামীকে গ্রেফতার না করে পুলিশ কোন ধরনের তদন্ত ছাড়াই জাহাঙ্গীরকে ওই গ্রেফতার করেছে। মামলায় অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র মাসুমের বয়স দেখানো হয়েছে ১৯ বছর। এভাবেই শাহিনুরের পরিবারকে নিশ্চিহ্ন করতে তার ভাইয়েরা এখন মরিয়া হয়ে লেগেছে। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে কলাপাড়া থানা পুলিশ। পহেলা আগস্ট শাহিনুর ও তার স্বামীকে অর্ধ উলঙ্গ করে বর্বর নির্যাতন চালানোর পরে এই পরিবারের সবাই রয়েছে চরম আতঙ্কে। তার উপরে আইনি সহায়তার জন্য মামলা করে উল্টো মিথ্যা মামলায় স্বামীকে পুলিশ গ্রেফতার করায় দিশাহারা হয়ে পড়েছেন শাহিনুর। তিনি মানবাধিকার সংগঠনসহ পুলিশের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।