জাতীয় ঢাকা সারাদেশ

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১১, আহত ৩২

image_49214হটনিউজ ডেস্ক,ঢাকা: গাইবান্ধা ও মাদারীপুর জেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ১১ জন নিহত ও কমপক্ষে ৩২ জন আহত হয়েছে।ঈদের পরের দিন শনিবার বিকেল ৪ থেকে সাড়ে ৫টার মধ্যে এ দুই দুর্ঘটনা ঘটে।আমাদের গাইবান্ধা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, বিকেল ৪টার দিকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার বোয়ালীয়ায় ঢাকা থেকে রংপুরগামী হানিফ পরিবহন ও গাইবান্ধার নাকাইহাট থেকে বগুড়াগামী বাসের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ৮ জন নিহত হয়। তবে নিহত ব্যক্তিদের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।এ ঘটনায় আহত হয় আরও ৩২ জন। আহতদের গোবিন্দগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।হাইওয়ে পুলিশের গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি ফারুক হোসেন বাংলামেইলকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মাদারীপুর প্রতিনিধি জানান, বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে জেলার রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট এলাকায় বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট সূর্যমুখী পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসের চাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে এক আরোহীর নাম সাব্বির হোসেন বলে জানা গেছে। তার বাড়ি মাদারীপুর ফেরিঘাট এলাকায়। বাকি দুইজনের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে রাজৈর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাসিরুল ইসলাম।
গাইবান্ধা ও মাদারীপুর জেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ১১ জন নিহত ও কমপক্ষে ৩২ জন আহত হয়েছে।

ঈদের পরের দিন শনিবার বিকেল ৪ থেকে সাড়ে ৫টার মধ্যে এ দুই দুর্ঘটনা ঘটে।

আমাদের গাইবান্ধা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, বিকেল ৪টার দিকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার বোয়ালীয়ায় ঢাকা থেকে রংপুরগামী হানিফ পরিবহন ও গাইবান্ধার নাকাইহাট থেকে বগুড়াগামী বাসের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ৮ জন নিহত হয়। তবে নিহত ব্যক্তিদের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

এ ঘটনায় আহত হয় আরও ৩২ জন। আহতদের গোবিন্দগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাইওয়ে পুলিশের গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি ফারুক হোসেন হটনিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মাদারীপুর প্রতিনিধি জানান, বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে জেলার রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট এলাকায় বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট সূর্যমুখী পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসের চাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে এক আরোহীর নাম সাব্বির হোসেন বলে জানা গেছে। তার বাড়ি মাদারীপুর ফেরিঘাট এলাকায়। বাকি দুইজনের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে রাজৈর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাসিরুল ইসলাম।গাইবান্ধা ও মাদারীপুর জেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ১১ জন নিহত ও কমপক্ষে ৩২ জন আহত হয়েছে।

ঈদের পরের দিন শনিবার বিকেল ৪ থেকে সাড়ে ৫টার মধ্যে এ দুই দুর্ঘটনা ঘটে।

আমাদের গাইবান্ধা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, বিকেল ৪টার দিকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার বোয়ালীয়ায় ঢাকা থেকে রংপুরগামী হানিফ পরিবহন ও গাইবান্ধার নাকাইহাট থেকে বগুড়াগামী বাসের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ৮ জন নিহত হয়। তবে নিহত ব্যক্তিদের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

এ ঘটনায় আহত হয় আরও ৩২ জন। আহতদের গোবিন্দগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাইওয়ে পুলিশের গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি ফারুক হোসেন হটনিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মাদারীপুর প্রতিনিধি জানান, বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে জেলার রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট এলাকায় বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট সূর্যমুখী পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসের চাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে এক আরোহীর নাম সাব্বির হোসেন বলে জানা গেছে। তার বাড়ি মাদারীপুর ফেরিঘাট এলাকায়। বাকি দুইজনের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে রাজৈর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাসিরুল ইসলাম।