অর্থ ও বাণিজ্য রাজশাহী

পাবনায় চলছে শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা

images (10)খাইরুল ইসলাম বাসিদ, পাবনা:সময় শেষ, কিন্তু কেনাকাটার তো হয় না শেষ কিছুতেই। কিছু না কিছু বাদ পড়ে যায়থ বাকি থেকে যায় কোনো না কোনো প্রয়োজন। অতএব আবার শপিং সেন্টারে ছোটাছুটি রুদ্ধশ্বাসে। এভাবে নির্মল অনিন্দ্য সুন্দর অনাবিল আনন্দের সোনাবরণ চাঁদটির মুখদর্শনের দিন পর্যন্ত চলবে পাবনা শহরের শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা।

শহরের ঈদের বাজার প্রকৃতপক্ষে আগের মাসের মাঝামাঝি থেকেই একটু একটু জমে উঠতে শুরু করেছে। মধ্য রমজানের পর বিগত মাসের বেতন-বোনাস অগ্রিম প্রাপ্তির কারণে মধ্যবিত্ত শ্রেণীর সংখ্যাগরিষ্ঠ চাকরিজীবী কেনাকাটা শুরু করতে পেরেছেন বেশ স্বস্তির সঙ্গে। ফলে মার্কেটগুলোতে ভিড় বাড়তে থাকে ক্রমে। আর মাত্র একদিন দিন বাকি সেই প্রতীক্ষিত দিনটির। তাই উপচেপড়া ভিড় সুপরিচিত শহরের নিউ মার্কেট, খান বাহাদুর শপিংমল, নিউ পয়েন্ট, রবিউল মার্কেট, স্টার মার্কেট অ্যান্ড শপিংমল, হাজী মার্কেট, চাকী মার্কেট, হুমায়রা মার্কেট, এআর প্লাজা, আল আকসা মার্কেট, কিডস অ্যান্ড কেয়ার, এআর কর্নার, সেভেন স্টার মার্কেট, সেঞ্চুরি প্লাজা, বিভিন্ন বিপণিবিতানসহ শহরের আনাচে-কানাচে ছোট-বড় সব মার্কেটেই চলছে জমজমাট কেনাবেচা।

কিন্তু এবারের দৃশ্যপট যেন পাল্টে গেছে। শেষ মুহূর্তে দেখা যাচ্ছে অসংখ্য ক্রেতার ভিড় পোশাক-আশাক, সাজসজ্জা, সেমাই-নুডুলস, কোমল পানীয়সহ সব ধরনের পণ্যের বিপণিকেন্দ্রগুলোতে।

প্রতি বছরের মতো এবারও রমজানের প্রায় প্রথম সপ্তাহ থেকে বুদ্ধিমান ও কৌশলী ক্রেতাদের মার্কেটমুখো হতে দেখা যায়। আর তাই ঈদকে সামনে রেখে শহরের অভিজাত বিপণিকেন্দ্রগুলো রমজানের অনেক আগে থেকেই প্রস্তুতি নিয়ে বসে ছিলো গ্রাহকদের আতিথেয়তায় মনোলোভা সুযোগ-সুবিধার পণ্যের পসরা সাজিয়ে।

শহরের মধ্য ও নিম্ন-মধ্যবিত্ত শ্রেণীর দোকানেও তিন হাজার থেকে ১০ থেকে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরি ও বুটিকের কাতান, বেনারসিসহ বিভিন্ন মনোলোভা শাড়ি উঠেছে। শুধু কাতান শাড়িই রয়েছে পাঁচ রকমেরথ স্বর্ণকাতান, কুচকুচ কাতান, প্রাণকাতান, ফুলকাতান ও বুটিক কাতান। এগুলোর দাম চার থেকে ৮ হাজার টাকার মধ্যে। ঢাকার মিরপুরের কাতান ও বেনারসি এসেছে অভিনব কারুকাজ, নকশা ও বৈচিত্র্য নিয়ে।

অভিজাত বিপণিবিতান সানমারের একটি দোকানে দেখা গেল, আঁচলসহ পুরো শাড়ির জমিনে সোনারুপার রঙে সুতার কাজ করা। মূল্য হাঁকা হয়েছে ২০ হাজার টাকা থেকে ৫০ হাজার টাকা। কারুকার্যময় একটি লেহেঙ্গারও একই ধরনের দাম চাইতে দেখা গেছে।

পায়জামা-পাঞ্জাবির মধ্যে বুকে কাঁধে হাতে অপূর্ব সমন্বয় ও সামঞ্জস্য রেখে এমব্রয়ডারি বা হাতে কাজ করা একটি সেটের দাম চাওয়া হয়েছে ৫ হাজার টাকা। কম দামের পায়জামা-পাঞ্জাবিও পাওয়া যাচ্ছে ওসব অভিজাত বিপণিকেন্দ্রগুলোতে।