আন্তর্জাতিক বিনোদন

এক নম্বরে দীপিকা, অন্য নায়িকাদের রেট কত?

1375710999.হটনিউজ বিনোদন ডেস্ক : বলিউডে নায়িকাদের কেরিয়ার হলো কানামাছি খেলা। আর সেই খেলায় টিকে থাকেন তারাই, যারা পিচ কামড়ে পড়ে থাকতে পারেন। সেই দৌড়ের নবতম মুখ- দীপিকা পাডুকোন।

বলিউডের নায়িকাদের নাম্বারিং-এ হঠাৎই একটা বড়সড় পরিবর্তন এসে গিয়েছে। দীপিকা পাডুকোন হয়ে গিয়েছেন এই মুহূর্তে বলিউডের এক নম্বর নায়িকা। শেষ এক বছর ধরে এই এক নম্বরে পৌঁছানোর জন্য তিনি অবশ্য কম পরিশ্রম করেননি। গত বছর ‘ককটেল’ আর ‘রেস টু’-এর মতো হিট ছবি ছিল তার ঝুলিতে। ‘দেশি বয়েজ’ আর ‘হাউসফুল’-এর মতো ছবিতেও খুব খারাপ কাজ করেননি দীপিকা। আর তারপরেই এই বিশাল হিট: ‘ইয়ে জওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি’। আর এবার তিনি এই এক নম্বর জায়গাটা ধরে রাখছেন বলেই আন্দাজ করছেন সবাই। আর সেটা কিং খানের সঙ্গে পরপর দুই ছবিতে গাঁটছড়া বেঁধে। ‘চেন্নাই এপ্রেস’-এরপর ফারহা খানের ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’।
তবে এর পুরোটাই কি তার একার কৃতীত্ব? বাকি নায়িকাদেরও কি কোনো ভূমিকা নেই এর পিছনে? অবশ্যই আছে। কারিনা গত বছর বিয়ে করেছেন। আর তাতেই তিনি ইঁদূর দৌড় থেকে বাদ। ক্যাটরিনা আর কারিনা দীর্ঘ সময় এই এক নম্বর জায়গাটা ধরে রাখার জন্য লড়াই চালিয়ে গিয়েছেন। যাদের দু’জনের বয়সই এখন তিরিশের কোটায়। নায়িকার বয়স ২৯-এর ওপরে চলে গেলেই, তাকে দেখে নাক কোঁচকাতে থাকে বলিউড। সেখানে দীপিকা ২০-র ঘরের রয়েছেন। অবশ্যই তার সামনে সুযোগ বেশি। যেখানে ক্যাটরিনা আর কারিনা সেই হিসাবে ‘অবসর’-এর দিকেই।
কিছুদিন আগেই শোনা যাচ্ছিল, সালমান খানের সঙ্গে জুটি বাঁধতে চলেছেন দীপিকা। কিন্ত্ত সে আলোচনার উত্তাপে পানি ঢেলে দীপিকা শাহরুখের সঙ্গে ‘চেন্নাই এপ্রেস’-এ জুটি বেঁধে ফেলেন। পাশাপাশি তিনি সমান তালে কাজ করছেন রনবীর কাপুর, ইমরান খানের মতো কমবয়সী নায়কদের সঙ্গেও। কাজ করছেন বলিউডের নামজাদা পরিচালকদের সঙ্গেও। তালিকায় রয়েছেন ইমতিয়াজ আলি, প্রিয়দর্শন, আশুতোষ গোয়াড়িকরের মতো বিগশট-দের নাম।
শাহরুখ খানের সঙ্গে জুটি বাঁধার পরেও তাকে আর রনবীর কাপুরকে পর্দায় একসঙ্গে দেখার চাহিদা রয়েছে দর্শকদের মধ্যে। ফলে তাকে কাজে নেয়া নিয়ে নির্মাতাদের মধ্যে কাড়াকাড়ি থাকবেই, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। শুনতে খুব অবাক লাগলেও এটাই সত্যি যে, ‘ইয়েহ জওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি’, ‘চেন্নাই এপ্রেস’ আর ‘রাম লীলা’, তিনটে ছবির কাজই ডেট নেই বলে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন ক্যাটরিনা কাইফ। আর সেই তালিকাতেই আরো একটি নাম ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’। ফলে সেটাও স্বাভাবিকভাবেই এসে পড়ল দীপিকার হাতে।
রানিদের কোষাগার
১-১.৫ কোটি: অনুশকা, সোনম
অনুশকা শর্মা: যার বয়স মাত্র ৪-৫টা সিনেমা, তিনি যখন ছবি প্রতি ১-১.৫ কোটি টাকা নিচ্ছেন বলে শোনা যাচ্ছে, তখন বুঝতেই হবে তিনি রীতিমতো বড় দৌড়ে রয়েছেন। বিজ্ঞাপনে কাজের জন্য তিনিও দিন প্রতি এক কোটি টাকা নেন। যেটাও বেশ মোটা অঙ্কই একজন উঠতি তারকার ক্ষেত্রে।
সোনম কাপুর: মজার ব্যাপার সোনম কাপুরের বিজ্ঞাপনে কাজের দাম বেশ চড়া। দিন প্রতি এক কোটি। কারণ ওই বিভাগে তিনি রীতিমতো জনপ্রিয়। যেখানে ছবিতে কাজের জন্যও তিনি এক কোটি টাকার আশপাশেই পারিশ্রমিক নেন বলে শোনা যায়।
২-৩ কোটি: দীপিকা, সোনাক্ষী, বিপাশা
দীপিকা পাডুকোন: মডেলিং দিয়ে শুরু। ছবিতে আসেন ‘ওম শান্তি ওম’-এ কাজ করে। ২০০৭ সালে সবচেয়ে সফল অভিনেত্রীর শিরোপা ছিল তার কাছে। শোনা যাচ্ছে, তিনি নাকি ছবি প্রতি তিন কোটি টাকা নিচ্ছেন এখন। বিজ্ঞাপনে কাজ করার জন্য প্রতিদিন এক কোটি টাকা নিচ্ছেন নাকি দীপিকা।
সোনাক্ষী সিনহা: সোনাক্ষী হচ্ছেন সেই অভিনেত্রী, যিনি সিঁড়ি ভাঙছেন দ্রুত। এখন ছবির জন্য নাকি ২-৩ কোটি আর বিজ্ঞাপনের জন্য দিনপ্রতি এক কোটি টাকা নিচ্ছেন তিনি।
বিপাশা বসু: বিপাশা ২ কোটি টাকার মতো নেন ছবিতে কাজের জন্য। এই অঙ্কটাই প্রমাণ করে, তিনি বলিউডের প্রধান অভিনেত্রীদের তালিকায় রয়েছেন। বিজ্ঞাপনে কাজের জন্য দিন প্রতি তার পারিশ্রমিক ৫০ লক্ষের মতো।
৩-৫ কোটি: বিদ্যা
বিদ্যা বালান: ‘ডার্টি পিকচার’-এর পরেই বিদ্যা তার আসল মূল্য আর খ্যাতিটা পেলেন। তিনি এই মুহূর্তে প্রথম পাঁচজন বলিউড অভিনেত্রীর মধ্যে। ৩ থেকে ৫ কোটি টাকার মধ্যে তার পারিশ্রমিক। বিজ্ঞাপনে কাজের জন্য দিন প্রতি তিনি এক কোটি টাকা নেন।
৫-৬ কোটি: প্রিয়াঙ্কা
প্রিয়াঙ্কা চোপড়া: ছবি প্রতি তিনি নাকি পারিশ্রমিক নেন নেন ৫ কোটি টাকা। শোনা যাচ্ছে, ‘জঞ্জির’-এর জন্য দ্বিগুণ পারিশ্রমিক দাবি করেছেন তিনি। বিজ্ঞাপনে কাজের জন্য তিনি দিন প্রতি ০.৬৫ কোটি থেকে ০.৭৫ কোটি টাকার মতো নেন। যা কি না ক্যাটরিনা বা কারিনার বিজ্ঞাপনে কাজের পারিশ্রমিকের তুলনায় বেশ কম।
৬-৮ কোটি: ক্যাটরিনা, কারিনা, ঐশ্বরিয়া
ক্যাটরিনা কাইফ: ক্যাটরিনা কম বল্কবাস্টার হিট দেননি। তাই তিনি এই জায়গায় পৌঁছতে পেরেছেন। ২০০৬ থেকে তিনি সুপারস্টার হয়ে যান। যত দূর জানা যায়, তিনি নাকি ছবি-পিছু ৮ কোটি টাকা নেন। বিজ্ঞাপনে কাজের জন্য দিন প্রতি এক কোটি।
কারিনা কাপুর: করিনা কাপুর বলিউডের সবেচেয়ে দামি অভিনেত্রীর একজন। ছবিতে কাজের জন্য তিনি ৬-৮ কোটি টাকা নেন। ‘হিরোইন’ কাজের জন্য অবশ্য ৫ কোটি টাকা নিয়েছিলেন। বিজ্ঞাপনে কাজের জন্য দিন প্রতি ১-১.২৫ কোটি টাকার কাছাকাছি নেন তিনি।
ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন: ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন এক সময় ছবি প্রতি ৬ কোটি টাকা নিতেন। কিন্ত্ত মা হয়ে যাওয়ার পর তিনি নাকি এখন অনেকের তুলনায় কম পারিশ্রমিকেও কাজ করছেন। তিনি আর অভিষেক বচ্চন নাকি একটি প্রসাধনীর বিজ্ঞাপনে কাজ করার জন্য সম্মিলিতভাবে ২৫ কোটি টাকা পেয়েছেন। কিন্ত্ত এরপর তিনি কত পারিশ্রমিক নিতে পারেন, তা এখনও আন্দাজ করা যাচ্ছে না।
এখানে যে পারিশ্রমিক আর এনডোরসমেন্টের অঙ্ক উল্লেখ করা হয়েছে, তা ইন্ডাস্ট্রির চলতি হিসেবে ভিত্তিতে। কেউ-ই এই অঙ্কগুলির সত্যাসত্য স্বীকার করেন না। অভিনেত্রীদের সচিব বা মুখপাত্ররাও এতে শিলমোহর দেননি। এখানে যে হিসাব দেয়া হয়েছে, তার নেপথ্যে কোনো প্রেস রিলিজ রয়েছে, সেটা ভেবে নিলেও ভুল হবে।
প্রতি বছরই পারিশ্রমিকের অঙ্কটা বদলে যায়। ফলে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সামগ্রিক চিত্রটাও বদলাতে থাকে। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া