ঢাকা প্রযুক্তি

আয়োজন করছে রবি অ্যাপস প্রতিযোগিতার

robi-bg220130804063208স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,হটনিউজটোয়েন্টিফোরবিডি.কম,ঢাকা: তরুণদের জন্য অ্যাপস প্রতিযোগিতার আয়োজন করছে দেশের অন্যতম বৃহৎ মোবাইল অপারেটর প্রতিষ্ঠান রবি আজিয়াটা লিমিটেড।রোববার গুলশানে রবির কর্পোরেট অফিসে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ ‘অ্যাপস কনটেস্ট’ আয়োজনের ঘোষণা দেওয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে রবির সিইও (চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার) ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর মাইকেল ক্যুনার, প্রতিযোগিতায় রবির সহযোগী তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ইএটিল এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও চেয়ারম্যান মুবিন খান, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) ভাইস চেয়ারম্যান গিয়াসউদ্দিন আহমেদ এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক(এটুআই প্রোগ্রাম) কবির বিন আনোয়ার উপস্থিত ছিলেন।

দেশে দ্বিতীয়বারের মত এ ধরনের অ্যাপস প্রতিযোগিতার আয়োজন হতে যাচ্ছে। আয়োজকরা জানিয়েছেন, এ অ্যাপস প্রতিযোগিতার মাধ্যমে দেশের মেধাবী অ্যাপস নির্মাতাদের খুঁজে বের করার একটি সুযোগ তৈরি হয়েছে, যার মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তি, সামাজিক ও বাণিজ্যিক অগ্রগতিতে তারা ভূমিকা রাখতে পারবেন।

এছাড়া প্রতিযোগিতাটির দিকে আরো বেশি আলোকপাত করতে এবার এর ব্যাপ্তি বাড়িয়ে নয় মাস করা হয়েছে।

এ প্রতিযোগিতার প্রথম তিনজন প্রতিযোগী পাবেন যথাক্রমে ১০ লাখ, ৫ লাখ ও ২ লাখ টাকার পুরস্কার। এছাড়া একটি করে স্মার্ট ফোন ও ইএটিএল-এ চাকরির সুযোগ পাবেন শীর্ষ ১০ প্রতিযোগী।

এবারের অ্যাপস কনটেস্টে ফেসবুক গেমিং নামে নতুন একটি বিভাগ চালু করেছে রবি। প্রতিযোগিতা চলাকালে ফেসবুক গেম ডেভেলপাররা তাদের তৈরি অ্যাপস পাঠাতে পারবেন। সেগুলো থেকে বাছাইকৃত গেমগুলো রবি ফেসবুক পেজে খেলার জন্য আপলোড করা হবে।

পপুলার বিভাগে সবচেয়ে জনপ্রিয় গেম নির্মাতা পাবেন এক লাখ টাকা পুরস্কার। প্রথম এক বছর শুধু রবি গ্রাহকরাই শীর্ষ ১০টি গেম উপভোগ করতে পারবেন। এরপর সমাপনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এগুলো বাণিজ্যিকভাবে চালু করা হবে।

আয়োজকদের উদ্দেশ্য শুধু প্রতিযোগিতা পরিচালনা নয়, বরং মোবাইল অ্যাপস ডেভেলপারদের জন্য একটি প্লাটফর্ম তৈরি করে তাদের এক ছাতার নিচে নিয়ে আসার পাশাপাশি তাদের দক্ষতা বৃদ্ধি ও অ্যাপসের মান বৃদ্ধির মাধ্যমে ক্রমান্বয়ে মানুষের জীবনধারাকে বদলে দেওয়াও তাদের উদ্দেশ্য বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা।

রবি’র সিইও ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর মাইকেল ক্যুনার বলেন, ‘মেধাবী ও উদ্ভাবনী ক্ষমতার অধিকারী মোবাইল অ্যাপস ডেভেলপারদের খুঁজে বের করতে এ প্রতিযোগিতাটি আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে।
তরুণদের অংশগ্রহণে এমন একটি প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত। এ কার্যক্রমটি গ্রামীণ জনগোষ্ঠীকে এগিয়ে নিতে রবি’র প্রত্যয়েরই বহিঃপ্রকাশ’।