জাতীয় ঢাকা

বিশ্বজিত হত্যা মামলায় মিথ্যা সাক্ষ্য দিলেন সাক্ষী

6_937362315আদালত প্রতিবেদক:আসামিদের ভয়ে বিশ্বজিত হত্যা মামলার পাঁচ নম্বর সাক্ষী মো. বাবর আদালতে মিথ্যা সাক্ষ্য দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন আদালতের পিপি এস এম রফিকুল ইসলাম। গতকাল বুধবার ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৪ এর বিচারক এ বি এম নিজামুল হকের আদালতে এ ঘটনা ঘটে। ভিক্টোরিয়া পার্কের উত্তর পার্শ্বে অবস্থিত কিউজি পেট্রোল পাম্পের কর্মচারী। এ আদালতের পিপি রফিকুল আদালতকে বলেন,‘ সাক্ষী বাবর আসামিদের শেখানো কথা আদালতে এসে সাক্ষ্য দিয়েছেন। যে কারণে রাষ্ট্রপক্ষের এ সাক্ষীকে আমি জেরা করব।’ আদালত এ আবেদন গ্রহণ করলে সাক্ষী বাবরকে জেরা করেন পিপি। পিপি রফিকুল বলেন,‘ আপনি বাবর। আপনি আদালতে এসে সম্পূর্ণ মিথ্যা সাক্ষ্য দিচ্ছেন। যে দিন ও যে সময় বিশ্বজিতকে হত্যা করে আসামিরা তখন আপনি সেখানে উপস্থিত ছিলেন। আপনি দেখেছেন, বিশ্বজিতকে এ আসামিরা ধাওয়া করে আপনার পেট্রোল পাম্পের উত্তর পাশের ইনটেনসিভ ডেন্টাল কেয়ারের দোতলায় নিয়ে যায়। সেখানে আসামিরা চাপাতি, লোহার রড, লাঠি দিয়ে আসামিরা বিশ্বজিতকে কোপায়। এমনকি দোতলা থেকে নিচে নামানোর পরও বিশ্বজিতকে এ আসামিরা কোপাতে থাকে। আপনি ঘটনা স্থলে ছিলেন।’ পিপির এ জেরার জবাবে সাক্ষী বাবর আদালতকে বলেন,‘ আমি ঘটনার দিন ছিলাম না। কারণ আমার প্রেট্রোল পাম্প সেদিন বন্ধ ছিল। আমি বিশ্বজিতকে হত্যা করার খবর পরদিন লোকমুখে শুনি।’ এ মামলায় এ যাবৎ আরও চার সাক্ষী আদালতে এসে সাক্ষ্য দিয়েছেন। এ হত্যা মামলায় গ্রেফতার হয়ে বর্তমানে আট আসামি কারাগারে আছেন। কারাগারে থাকা আট আসামিকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। আর পলাতক রয়েছেন ১৩ আসামি।গত বছরের ৯ ডিসেম্বর বিএনপির অবরোধ কর্মসূচি চলাকালে পুরান ঢাকার ভিক্টোরিয়া পার্কের সামনে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের ক্যাডারদের হাতে নির্মমভাবে নিহত হন নীরিহ দর্জি ব্যবসায়ী বিশ্বজিত দাস।