খেলা

রাসেলে হোঁচট ১০ জনের আবাহনীর

5127811fe86a5952202a6e07cd6e0794-584c1117c4591খেলা ॥ হটনিউজ২৪বিডি.কম : শেখ রাসেলকে প্রথম পর্বেও হারাতে পারেনি ঢাকা আবাহনী। দুই দলের পরবর্তী সাক্ষাতকারেও পারল না।

আজ শনিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ১৯তম রাউন্ডে আবারও দুই দলের সাক্ষাতে ম্যাচ শেষ হলো গোলশূন্য ড্রয়ে। মাঝে আবাহনী ১০ জনের দলে পরিণত হলেও সেই সুবিধা নিতে পারেনি রাসেল।

তবে ১৯ খেলায় ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই আছে আবাহনী। ২১ পয়েন্ট নিয়ে ৮ নম্বরে শেখ রাসেল। বাকি তিন ম্যাচে ৭ পয়েন্ট পেলে আবাহনীই হাসবে শিরোপা জয়ের হাসি। তবে চট্টগ্রাম আবাহনীর কোনও ব্যর্থতা আরও এগিয়ে দিতে পারে আবাহনীকে। চট্টগ্রাম আবাহনী তাদের বাকি চার ম্যাচ জিতলে লিগের শেষ পর্যন্ত চলবে শিরোপা লড়াই।

খেলার ৪ মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত আবাহনী। মিডফিল্ডার জোনাথান ডেভিড মাঝমাঠ থেকে কোনাকুনি থ্রু থেকে পাস দিয়ে সানডে চিজোবার পথটা উন্মুক্ত করে দেন, এগিয়ে গিয়ে কোনাকুনি মাটি কামড়ানো শট নিয়েছিলেন সানডে। কিন্তু শেখ রাসেল গোলরক্ষক বিপ্লব ভট্টাচার্য্য ডান দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে কর্নার করে দলকে বাঁচান।

শেখ রাসেলও ২০ মিনিটে চলে এসেছিল গোলের কাছাকাছি। হাইতিয়ান মিডফিল্ডার সেবাসতিয়ান থুরিয়ের ডিফেন্সচেড়া পাস দিয়েছিলেন, ক্যামেরুনিয়ান ফরোয়ার্ড জঁ জুলিয়াস ইকাঙ্গা তাতে বক্সের ওপর থেকে নেন বাঁপায়ের জোরালো শট। ক্রসপিসের সামান্য ওপর দিয়ে বল চলে যায় মাঠের বাইরে।

৩৭ মিনিটে আবাহনী হয়ে যায় ১০ জনের দল। মাঝমাঠে বল দখলের লড়াইয়ে জঁ জুলিয়াস ইকাঙ্গাকে বল ছাড়া পেছন খেকে লাথি মারলে রেফারি জালালউদ্দিন সরাসরি লাল কার্ড দেখান লি টাককে। নির্ভরযোগ্য ইংলিশ ফরোয়ার্ডকে হারায় আবাহনী। সঙ্গে সঙ্গে বদলে ফেলতে হয় পুরো খেলার ছক।

ইনজুরির কারণে দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে মাঠে নামেননি আরেক নির্ভরযোগ্য ফরোযার্ড নাইজেরিয়ান সানডে চিজোবা। তার বদলে মাঠে নামেন মিডফিল্ডার শাহেদুল আলম, কিছুটা রক্ষণাত্মক হয়ে খেলে আবাহনী। তবে ৬৪ মিনিটে দুর্ভাগ্যের শিকার হয় আকাশি নীল শিবির। বক্সের ওপর থেকে বাঁকানো শট নিয়েছিলেন মিডফিল্ডার ইমন বাবু, আবাহনীকে হতাশায় পুড়িয়ে ক্রসপোস্টে লেগে বল ফিরে আসে মাঠে।

সানডে ও লি টাক না থাকায় আবাহনীর আক্রমণ হয়ে পড়ে ধারহীন। জোনাথান ডেভিড ও জুয়েল রানার মাঝে ফ্রন্টলাইনে ছিল না কোনও সমঝোতা।

তবে প্রতিপক্ষ যে ১০ জনের, সেটা শেখ রাসেলের খেলায় বোঝা যায়নি। তারা নিতে পারেনি বাড়তি কোনও সুবিধা। আবহনীর বিপক্ষে প্রথম পর্বে ১-১ ড্র করেছিল তারা, এবার গোলশূন্য ড্র করে খুশি মনেই মাঠ ছাড়ে তারা।

এদিকে দিনের প্রথম খেলায় ব্রাদার্স ইউনিয়নের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে শেখ জামাল। এতে শিরোপারক্ষার লড়াই থেকে ছিটকে পড়েছে গতবারের চ্যাম্পিযনরা। ১৯ খেলায় তাদের পয়েন্ট ৩০। বাকি তিন ম্যাচ জিতলেও তাদের শিরোপা ধরে রাখা হবে না। সমান ম্যাচে ব্রাদার্সের পয়েন্ট ২৪, তারা আছে ছয় নম্বরে।