জাতীয় ঢাকা প্রধান খবর

কোনো দলকে বাদ কিংবা সুবিধা দেবে না ইসি

ec-logo-new-tm20130728060022সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট,হটনিউজটোয়েন্টিফোরবিডি.কম,ঢাকা: কোনো দল বা ব্যক্তিবিশেষকে নির্বাচন থেকে বাদ দেওয়া অথবা বিশেষ সুবিধা দেওয়ার ইচ্ছা নির্বাচন কমিশনের নেই বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিব উদ্দিন আহমেদ।রোববার দুপুরে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ মন্তব্য করেন।সিইসি বলেন, ‘আমরা চাই, সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন। কাউকে বাদ দেওয়া বা সুবিধা দেওয়া নয়। আমরা সব দলের জন্য লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরির চেষ্টা করছি।’আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে মানবতাবিরোধী অপরাধে দণ্ডিতদের ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বিদ্যমান দালাল আইনে মানবতাবিরোধী এবং দণ্ডিত দালালদের ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার বিধান রয়েছে। আমরা গণপ্রতিনিধিত্ব অধ্যাদেশ (আরপিও) সংশোধনের মাধ্যমে সেখানে দণ্ডিত মানবতাবিরোধীদের ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার সুপারিশ করেছি। আরপিও যেহেতু নির্বাচন কমিশনের আইন, সেহেতু, আমাদের এ সিদ্ধান্ত।’তিনি আরো বলেন, ‘আইন একটি লম্বা প্রসেস (প্রক্রিয়া)। এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে জাতীয় সংসদ।’

এর আগে আজ রোববার জামায়াতে ইসলামীর আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট জসিম উদ্দিন সরকারের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল সিইসির সঙ্গে দেখা করেন।সিইসির সঙ্গে বৈঠক শেষে জামায়াতের সাবেক সংসদ সদস্য ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মো. তাহের সাংবাদিকদের বলেন, ‘পার্লামেন্টে আইন করে আমাদের নেতাদের ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেওয়া নির্বাচন কমিশনের কাজ নয়। জামায়াতকে নির্বাচন থেকে বাদ দিতেই ইসি এ উদ্যোগ নিয়েছে।’তিনি বলেন, ‘তাদের এ উদ্যোগ আইন ও সংবিধান বিরোধী এবং মানবতা পরিপন্থি। এটা একটা বিশেষ কোয়ার্টারের নির্দেশে করা হয়েছে। এতে আগামী নির্বাচন অনিশ্চয়তায় পড়বে।’