ঢাকা রাজনীতি

নিখোঁজ শিবির নেতাদের সন্ধানে পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

PRESS-CLUB-bg20130725041052স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,হটনিউজটোয়েন্টিফোরবিডি.কম,ঢাকা: তিন মাস ধরে নিখোঁজ শিবিরের ৩ নেতার সন্ধানের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন তাদের পরিবারের সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে পরিবারের সদস্যরা এ দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে পরিবারের সদস্যরা বলেন, আমরা তিনটি পরিবার নিরুপায় হয়ে এখানে উপস্থিত হতে বাধ্য হয়েছি। গত ২৪ জুন আজিজুর রহমান, তাজাম্মুল আলী ও ২৬ জুন আব্দুস সালাম নিখোঁজ হলেও আজ পর্যন্ত তাদের কোনো সন্ধান পাওয়া যাওয়া যায়নি।

সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয়, তিনজনই রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ণরত। তিনজনই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স পরীক্ষা দিয়েছেন। আজিজুর রহমান আরবি সাহিত্যে মাস্টার্স ফলপ্রার্থী। তার পিতা আব্দুস সালাম গ্রামের বাড়ি কুড়িগ্রাম জেলার ভুরুঙ্গামারী উপজেলার বাহের কেডার গ্রামে। তাজাম্মুল আলী ইসলামিক স্টাডিজে মাস্টার্স ফলপ্রার্থী। তার গ্রামের বাড়ি যশোর জেলার মনিরামপুর উপজেলার সরপুর গ্রামে। আব্দুস সালাম রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও বিচার বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র। তার গ্রামের বাড়ি রাজশাহী জেলার মতিহার থানার ধরমপুর গ্রামে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয়, গত ২৪ জুন ব্যক্তিগত কাজে আজিজুর ও তাজাম্মুল ঢাকায় অবস্থান করছিলেন। আমরা বিভিন্ন সূত্রে নিশ্চিত হয়েছি যে, তাদেরকে রাজধানীর বাড্ডা এলাকার পিপলস ইউনিভার্সিটির সামনে থেকে বিকাল সোয়া ৫টার দিকে সাদা পোশাকধারী ডিবি পুলিশের একটি দল আটক করে। তাদেরকে আটকের খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমেও প্রকাশিত হয়েছে। কিন্তু আটক করার পর তাদের কোথায় রাখা হয়েছে, সে বিষয়ে আমরা শত চেষ্টার পরও কোনো খোঁজ পাইনি। পুলিশ তাদেরকে আটকের বিষয়টি স্বীকার করেনি। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আটককৃতদের আদালতে হাজির করার নিয়ম থাকলেও পুলিশ তা করেনি।

পরবর্তীতে ২৬ জুন এই দুই সন্তানের খোঁজে আমরা ঢাকায় এলে আমাদের সহায়তা করতে ছাত্রশিবির রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও কল্যাণ সম্পাদক আব্দুস সালাম গত ২৬ জুন রাতে থানায় যান। থানায় জিডি করার পর থানার পাশের মসজিদে নামাজ পড়ে বের হওয়ার পথে তাকেও গ্রেফতার করে সাদা পোশাকধারী পুলিশ। এরপর আব্দুস সালামও এখন পর্যন্ত একইভাবে নিখোঁজ রয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে স্বজনরা বলেন, একমাস পেরিয়ে গেলেও সন্তানদের কোনো খোঁজ না পাওয়ায় বিকল্প কোনো পথ না দেখে আমরা আপনাদের সামনে আমাদের বক্তব্য তুলে ধরতে বাধ্য হচ্ছি। আশা করছি, আপনাদের মাধ্যমে নিখোঁজ তিন সন্তানের খোঁজে পাগলপারা তিন পরিবারের আর্তি, সরকার ও দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের কানে পৌঁছাবে।

তিন জনের পরিবারের পক্ষে বক্তব্য তুলে ধরেন তাজাম্মুল আলীর পিতা মাওলানা হযরত আলী।