ঢাকা রাজনীতি

বিএনপি লুটপাট ছাড়া কিছু বোঝে না

Muhitsm20130725032756স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,হটনিউজটোয়েন্টিফোরবিডি.কম,ঢাকা: প্রধান বিরোধী দল বিএনপি লুটপাট ছাড়া কিছু বোঝে না বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পূর্তভবনের সম্মেলন কক্ষে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘সাফল্যের চার বছর’ শীর্ষক স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন ও প্রকাশনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘উচ্চ পর্যায়ের দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণের জন্য যোগ্য নেতৃত্বের প্রয়োজন। আমাদের সরকার সেটি করেছে। কিন্তু, বিএনপি দুই মেয়াদে বিশেষ করে জ্বালানি খাতকে ডুবিয়েছে। তারা বুঝেই এটা করেছে, শুধু কমিশনের জন্য।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি প্রথম মেয়াদের পাঁচ বছরের চেয়ে দ্বিতীয় মেয়াদের পাঁচ বছরে বেশি দুর্নীতি করেছে। আর, বর্তমান সরকার উচ্চ পর্যায়ের দুর্নীতি রাহু মুক্ত করেছে।’

এ সময় তিনি আরো বলেন, ‘বিএনপি লুটপাট ছাড়া কিছু বোঝে না। সে জন্য তারা যে কোনো কাজেই লুটপাট হয়েছে বলে মন্তব্য করে।’

রাজউক বিষয়ে অর্থমন্ত্রী মুহিত বলেন, ‘রাজউক দুর্নীতির আখড়া এ বদনাম অনেকদিনের। আমরা রাজউককে দুর্নীতি থেকে মুক্ত করার চেষ্টা করছি।’

বর্তমান সরকার দুর্নীতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ায় গত ত্রিশ বছরে যে রাজস্ব আদায় হয়েছে, বর্তমান সরকারের চার বছরে তার চেয়ে বেশি রাজস্ব আদায় হয়েছে বলে জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান খান ও প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় সচিব ড. খন্দকার শওকত হোসেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘দুর্নীতি, দলবাজি ও ক্ষমতার অপব্যবহার অতীত থেকেই আমাদের ওপর চেপে বসেছে, যা এখনও আছে। তবে অনেক সময় আমরা দুর্নীতি, দলবাজি ও ক্ষমতার অপব্যবহারের বিরুদ্ধে একমত হই। কিন্তু, সাম্প্রদায়িক ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে একমত হতে পারিনা।’

তিনি বলেন, ‘আমরা অনেকে সাম্প্রদায়িক ও জঙ্গিবাদের পক্ষে রয়েছি। সাফল্যের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হলে জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’

এ সময় তিনি সরকারি কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেন, ‘দুর্নীতি করে ধরা পড়লে কাউকে রেহাই দেওয়া হবে না।

মনে রাখবেন, বর্তমান গণমাধ্যম খুবই শক্তিশালী। আমরা দুর্নীতি না ধরতে পারলেও তারা ঠিকই ধরে ফেলবে।’

আহমদ শফীর করা মন্তব্যের প্রতি ইঙ্গিত করে তথ্যমন্ত্রী ইনু বলেন, ‘সমাজে তেঁতুল তত্ত্ব রয়েছে। এ তত্ত্বের প্রতি অনেকে সর্মথন দিচ্ছেন। মৌলবাদ ও জঙ্গিবাদ বন্ধে আমাদের এ থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।’