কিশোরগঞ্জ সারাদেশ

বয়স্ক ভাতার কার্ড পেলেন লাঞ্ছিত হওয়া সেই বৃদ্ধ

1e0a5a40f2750826d50c15168c12aa39-582a7ecd0923dহটনিউজ২৪বিডি.কম : বয়স্ক ভাতার কার্ড চাওয়ায় ইউপি মেম্বারের হাতে লাঞ্ছিত হওয়া সেই বৃদ্ধ অবশেষে কার্ড পেলেন। তার নাম বাচ্চু মামুদ (৭৭)। তার বাড়ি নীলফামারীর কিশোরীগঞ্জ উপজেলার চাঁদখানা ইউনিয়নের নগরবন গ্রামে।

উৎকোচ গ্রহণকারী চাঁদখানা ইউনিয়নের এক নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য লুৎফর রহমান ওই বৃদ্ধের পা-হাত ধরে ক্ষমা চেয়েছেন এবং উৎকোচের টাকা ফেরত দিয়েছেন।

কিশোরীগঞ্জ উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা মনিমুন আকতার জানান, বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টি সমাজসেবা অধিদফতরের মহাপরিচালকের নজরে আসে। এরপর তিনি দ্রুত এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন।

সোমবার সকালে বৃদ্ধ বাচ্চু মামুদকে তার বাড়ি হতে উপজেলা সমাজ সেবা অফিসে নিয়ে এসে বয়স্ক ভাতার কার্ড তৈরি করে (কার্ড নম্বর ৬২৭১) দেওয়া হয়।

কার্ড হাতে পেয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি। বলেন, ‘সাংবাদিকদের লেখনি যে কারেন্টের মতো কাজ করে আজ তার বাস্তব প্রমাণ পেলাম।’

আর ইউপি সদস্য লুৎফর রহমান তার ভুল স্বীকার করে বলেন, ‘মানুষ জীবনে ঠেকে খেখে। আমি আজ শিখলাম।’

প্রসঙ্গত, পাঁচ হাজার টাকা ঘুষ দিয়েও চার বছরেও বয়স্ক ভাতার কার্ড পাননি বৃদ্ধ বাচ্চু মামুদ। কার্ড না পেয়ে টাকা ফেরত চাইতে গেলে ইউপি মেম্বার ওই তাকে থাপ্পড় মারে। এ ঘটনায় ওই বৃদ্ধ রবিবার (১৩ নভেম্বর) কিশোরীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। এরপর এ খবরটি বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়।