জাতীয় ঢাকা

‘সাংবাদিকের গায়ে হাত তোলা অমার্জনীয় অপরাধ’

Inu Vai20130725062154হটনিউজ২৪বিডি.কম,নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা: সাংসদ রনির গ্রেপ্তারের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন,‘গণমাধ্যম কর্মীর গায়ে হাত তোলা অমার্জনীয় অপরাধ। এ অপরাধের সঙ্গে যুক্ত যে কাউকেই আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।’
বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে জেলা প্রশাসক সম্মেলনের শেষ দিনের প্রথম অধিবেশন শেষে তিনি এ কথা বলেন।
তথ্যমন্ত্রী ইনু বলেন,‘রনিকে আদালতের বারান্দায় দাঁড় করানোর মধ্য দিয়ে গণমাধ্যমের প্রতি সরকারের শ্রদ্ধা প্রকাশ পেয়েছে। আশা করি আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য আপনারা সাহায্য করবেন।’
অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের তথ্য সংগ্রহের জন্য গত শনিবার পল্টনে সাংসদ রনির কার্যালয়ে গিয়ে মারধরের শিকার হন ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের সাংবাদিক ইমতিয়াজ মমিন সনি ও ক্যামেরাম্যান মহসিন মুকুল।
এই ঘটনায় ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ রনিকে আসামি করে একটি মামলা করে। অন্যদিকে দুই সংবাদিকের বিরুদ্ধে রনিও পাল্টা মামলা করেন।
রনি রোববার বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন নিলেও টেলিফোনে হুমকির অভিযোগে ইনডিপেন্ডেন্ট কর্তৃপক্ষ একটি জিডি করার পর বুধবার জামিন বাতিল করে রনিকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেয় আদালত।
আর তার কিছুক্ষণ পরেই গতকাল গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল রাজধানীর বাড্ডা এলাকা থেকে পটুয়াখালীর এই সাংসদকে গ্রেপ্তার করে।
উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগের টিকিটে পটুয়াখালী-৩ (গলাচিপা-দশমিনা) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন গোলাম মাওলা রনি। এর আগেও তার বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের মারধরের অভিযোগ উঠেছে।