অপরাধ বরিশাল

মা মেয়েসহ তিন মহিলাকে বেধড়ক পিটিয়েছে

kalapara-02 (22-07-13)নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া:পঞ্চাশোর্ধ মুনসুরা বেগমের দুই হাত, দুই পা এবং পাজড়ের হাড় ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে। রড দিয়ে নির্দয় পেটানোর সময় শরীরে ঢুকে গর্ত হয়ে গেছে। মাথা কেটে রক্তাক্ত জখম হয়ে গেছে। মুনসুরার ছেলে বউ শাহনাজ আক্তার (২০) ও মেয়ে পলি আক্তারকেও (২৫) বেধড়ক পিটিয়ে চাষ করা জমির কাদার মধ্যে দুই ঘন্টা অচেতন অবস্থায় ফেলে রাখা হয়েছে। অর্ধচেতন অবস্থায় এদের তিনজনকে প্রায় এক ঘন্টা পরে স্থানীয় ইউপি মেম্বারসহ লোকজন উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করায়। এদের সবার অবস্থা আশঙ্কা জনক। পশ্চিম চাকামইয়া গ্রামের নাসির চৌকিদারের নেতৃত্বে নয় পুরুষ এবং তিন মহিলা সন্ত্রাসীর নেতৃত্বে রবিবার দুপুরে মুনসুরাদের উপরে নির্দয় বর্বর হামলা চালানো হয়েছে। মুনসুরার ছেলে মিজানুর রহমান জানায়, তাদের জমিতে জোর করে নাসির চৌকিদার চাষাবাদ করতে গেলে বাধা দেয়ায় এমন সন্ত্রাসী হামলা মারধর করা হয়েছে। এসময় মুনসুরার শ্রমজীবি স্বামী রইস গাজী ও ছেলে মিজানুর কেউ বাড়িতে ছিলেন না। এতোটাই গরিব যে আহতদের কিভাবে চিকিৎসা করাবেন তা নিয়ে এখন অসহায় এই পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা দিশাহারা হয়ে পড়েছেন। মিজানুর আরও জানায়, নাসির চৌকিদারদের ভয়ে তাদের কোন পুরুষ লোক বাড়িতে যায় না। এবার নারী সদস্যদের উপর চরমভাবে হামলে পড়ে। এলাকার লোকজন জানান, ইউনিয়ন পরিষদের একজন চৌকিদার হয়ে কিভাবে এমন সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করছে তা তারা ভেবে উঠতে পারছেন না।