জাতীয় ঢাকা

আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য প্রার্থী মেজর হালিমের ওপর হামলা

Faridpur pic-1 (1)ফরিদপর: ফরিদপুরের সালথায় আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য প্রার্থী মেজর হালিমের ওপর হামলা গাড়ি ভাংচুর অগ্নিসংযোগসহ তার ব্যক্তিগত দু’টি অস্ত্র রিভলবার ও শটগান লুট করে নিয়ে গেছে দুবৃর্ত্তরা। 
শনিবার মেজর আ.ত.ম হালিম (অবঃ) পিতার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নিজ গ্রামের বাড়ি সালথার বল্লভদী যাচ্ছিলেন। মেজর হালিমের গ্রামে আসার খবর পেয়ে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী ও তার সমর্থকরা ফরিদপুর শহরের রাজবাড়ী রাস্তার মোড় থেকে শতাধিক মাইক্রোবাসসহ তাকে বরণ করে নিয়ে যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে উপজেলার গট্টি ইউনিয়নের মাদ্রাসার মোড়ে রাস্তায় গাছ ফেলে ব্যারিকেড দেয়। এসময় হালিমের সমর্থকরা তা অপসারণের চেষ্টা করলে পুর্ব থেকে ওতপেতে থাকা প্রতিপক্ষের সর্মথকরা অতর্কিতভাবে হামলা চালায়। এসময় মেজর হালিম গাড়ি থেকে নেমে তাদের শান্ত করার চেষ্টা করেন। কিন্তু দুবৃর্ত্তরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মেজর হালিমকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করে। এসময় আত্মরক্ষায় এক রাউন্ড ফাকা গুলি ছোড়েন। তার সাথে থাকা সাংবাদিকরা এগিয়ে গেলে সন্ত্রাসীরা সাংবাদিকদের দু’টি গাড়ি ভাংচুর করে ও মারপিট করে। এসময় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে এক রণক্ষেত্রে পরীণত হয়। হামলায় গুরুতর আহত মেজর হালিম তার ভাগ্নে গুলিবিদ্ধ পিন্টু ও দেহরক্ষী জাহাঙ্গীরকে উদ্ধার করে স্থানীয় জনতা ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে তাকে ঢাকার সিএমএইচ এ স্থানান্তর করা হয়েছে। ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষে সাংবাদিকসহ কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়ে বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।