জাতীয় রাজশাহী

সাংবাদিক আখতার আহম্মেদ সিদ্দিকী আর নেই

Naogaon_pic_19.07.13স্টাফ রিপোর্টার নওগাঁ:নওগাঁয় বীর মুক্তিযোদ্ধা, পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আখতার আহমেদ সিদ্দিকী আর নেই। নওগাঁয় সকলের প্রিয় আখতার ভাই দীর্ঘদিন ধরে নানা অসুস্থতায় ভুগছিলেন। অবশেষে পৃথিবীর সকল মায়া কাটিয়ে শুক্রবার জুমা’র নামাজের পর পরই তিনি নিজ বাসভবনে মৃত্যুবরন করেন (ইন্নানিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহে রাজেউন )। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই পুত্র, পুত্রবধু এক নাতিসহ অসংখ্য বন্ধুবান্ধব, মুক্তিযুদ্ধের সহকর্মী, আত্মীয়স্বজন এবং গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

মৃত্যুর সংবাদ শহরে ছড়িয়ে পড়লে মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক কর্মী, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, পৌরসভার মেয়র, বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তাকর্মচারীসহ হাজার হাজার মানুষ তাঁর মরদেহ একনজর দেখার জন্য শহরের পোষ্ট অফিসপাড়াস্থ পৌরভবন সংলগ্ন বাসভবনে এসে ভীড় জমান।মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন দেরাদুনে অনুষ্ঠিত বিশেষ প্রশিক্ষনে নওগাঁ’র যে দু’জন মুক্তিযোদ্ধা অংশগ্রহন করেছিলেন প্রয়াত আখতার আহমেদ সিদ্দিকী ছিলেন তাঁদের একজন। ১৯৯৩ সালের নির্বাচনে তিনি নওগাঁ পৌরসভার চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন। পরবর্তী পর্যায়ে ১৯৯৭ সালে তিনি পুনরায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তাঁর সময় নওগাঁ পৌরসভার ব্যপক উন্নয়ন কর্মকান্ড সাধিত করায় পৌরবাসীর নিকট নিকট যথেষ্ট জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। তাঁর সম্পাদনায় এবং অর্থায়নে নওগাঁ থেকে ‘বাংলার কথা’ নামে একটি সাপ্তাহিক পত্রিকা প্রকাশিত হতো। সেই সুবাদে তিনি ১৯৯৯ এবং ২০০০ সালে পর পর দু’বার নওগাঁ জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। আওয়ামীলীগের রাজনিতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন তিনি ।

 

তিনি নওগাঁ’র ঐতিহ্যবাহি নাট্যসংগঠন ‘ নওগাঁ করনেশন হল সোসাইটি’র সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন দীর্ঘদিন। তাঁর দায়িত্ব পালনকালে বেশ কয়েক বছর আন্তঃজেলা নাট্য প্রতিযোগিতার আয়োজন ছিল উল্লেখযোগ্য। নওগাঁ’র সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড সম্প্রসারনে তিনি গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা রাখেন।