আন্তর্জাতিক

উত্তর কোরীয় জাহাজে জাতিসংঘ তদন্ত চায় পানামা

7আন্তর্জাতিক : কিউবা থেকে অস্ত্রের চালান নিয়ে যাওয়ার সময় ধরা পড়া উত্তর কোরিয়ার জাহাজে তদন্ত চালানোর জন্য জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে আহ্বান জানিয়েছে পানামা। এসব অস্ত্র পরিবহনের কারণে উত্তর কোরিয়ার ওপর আরোপিত অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘিত হয়েছে কি-না সে বিষয়টিও পানামা জাতিসংঘকে তদন্ত করে দেখার আহ্বান জানিয়েছে।
উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে দেশটির ওপর আরোপিত জাতিসংঘ নিষেধাজ্ঞার আওতায় পিয়ংইয়ংয়ে অস্ত্রের চালান পাঠানো নিষিদ্ধ। মাদক পাচারের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে পানামা গত সপ্তাহে জাহাজটি আটক করে এতে অস্ত্রশস্ত্রের সন্ধান পায়। জাহাজটিতে চিনির বস্তার নিচে অস্ত্রগুলো লুকানো ছিল।এগুলো কেনো লুকিয়ে রাখা হয়েছিল তা পরিস্কার করে জানতে চায় পানামা।
কিউবা এর আগে জাহাজটিতে থাকা অস্ত্রশস্ত্র তাদের বলে স্বীকার করেছে।কিউবার পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় বুধবার জানায়, সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন আমলের এসব অস্ত্র মেরামতের জন্য উত্তর কোরিয়ায় পাঠানো হচ্ছিল। পানামার নিরাপত্তামন্ত্রী জোসে রাউল মুলিনো বলেছেন, এগুলো এখন জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।তারাই এ ব্যাপারে কি করণীয় সে সিদ্ধান্ত নেবে।
নিরাপত্তা পরিষদের একজনসহ ৫ জন জাতিসংঘ তদন্তকারী অগাস্টের শুরুর দিকে পানামা যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা। উত্তর কোরিয়া এরই মধ্যে অবিলম্বে তাদের জাহাজ ও নাবিকদের ছেড়ে দেয়ার জন্য পানামার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।
উত্তর কোরিয়ার এ আহ্বানের পরই পানামা সরকার জাহাজটির ৩৫ নাবিকের বিরুদ্ধে দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছে।