রংপুর শিক্ষাঙ্গন

শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ ও মানববন্ধন

Kurigram College Student Bikkhob 18.07.13 001ডাঃ জি এম ক্যাপ্টেন, কুড়িগ্রামঃকুড়িগ্রাম সরকারী কলেজের শিক্ষার্থীরা ২০১০-১১ শিক্ষা বর্ষের অনার্স ১ম বর্ষের ফলাফল বাতিল ও বিষয় ভিত্তিক শিক্ষক দ্বারা ফলাফল পূনর্মূল্যায়নের দাবীতে বৃহস্পতিবার সকালে বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করে। এ সময় শিক্ষার্থীরা ৩৩ নাম্বরে পাশ, ২য় বর্ষে অটো প্রমোশন, গ্রেডিং প্রথা বতিল করে ডিভিশন প্রাথা চালু করন সহ ৯ দফা দাবি জানানো হয়।

মিছিলটি কুড়িগ্রাম সরকারী মহাবিদ্যালয় থেকে বের হয়ে সারা শহর প্রদক্ষিন করে মহাবিদ্যালয়ের বটতলায় এসে শেষ হয়। সেখানে ইউনুস আলীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন অর্নাস প্রথম বর্ষের ছাত্র মাইদুল ইসলাম, ২য় বর্ষের ছাত্র ইউসুফ আলী , ছাত্রনেতা আতিকুর রহমান আতিক, মৌসুমী রহমান বুবলী ও গৌতম কুমার প্রমূখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন, ২০১০-১১ ইং শিক্ষা বর্ষে কুড়িগ্রাম সরকারী কলেজ থেকে অনার্স ১ম বর্ষের পরিক্ষায় প্রায় ১৮ শত শিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে উত্তীর্ণ হয় মাত্র ৭শ ৫৮ জন। ১৪টি অনার্স বিভাগ সমূহের মধ্যে ভয়াবহ ফল বিপর্যয় দেখা যায় গনিত, ব্যবস্থাপনা ও হিসাব বিজ্ঞান বিভাগে। ব্যবস্থাপনা বিভাগে ২শ ৮২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাশ করে মাত্র ৩০ জন, হিসাব বিজ্ঞান বিভাগে ২শ ৯৯ জনের মধ্যে পাশ করে মাত্র ৫৪ জন ও গনিত বিভাগে ৬৬ জনের মধ্যে পাশ করে মাত্র ৯ জন শিক্ষার্থী। অন্যান্য বিভাগের ফলাফলও প্রায় অনুরুপ।

এ প্রসঙ্গে ইতিহাস বিভাগের বিভাগীয় প্রধান আক্তারুজ্জামান বলেন, গ্রেডিং প্রথা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য উপযুক্ত নয়। শিক্ষক স্বল্পতা, পর্যাপ্ত বইয়ের অভাব, বিষয় ভিত্তিক শিক্ষক দ্বারা উত্তরপত্র মূল্যায়ন না করা এবং দীর্ঘ মেয়াদী পূর্ব পরিকল্পনা ছাড়াই অনার্স কোর্সের সংখ্যা বৃদ্ধিই ফলাফল বিপর্যয়ের অন্যতম কারন।