রাজনীতি রাজশাহী

বগুড়ায় পুলিশের সাথে শিবির কর্মীদের সংঘর্ষ

shibir-logoবগুড়া অফিস:মুজাহিদের রায় কে কেন্দ্র করে জামায়াতে ইসলামীর ডাকে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল বগুড়ায় ঢিলেঢালা ভাবে পালিত হয়েছে। বগুড়ায় হরতাল চলাকালে শিবির – পুলিশের সংঘর্ষে পুলিশ সহ ৭জন আহত হয়েছে। এ সময় পুলিশ ৭ শিবির কর্মীকে আটক করেছে।বগুড়ায় হরতাল চলাকালে । সকাল থেকে শহরের রি , ভ্যান সহ অন্যান্য যানবাহন চলাচল করছে । দুরপাল্লার যানবাহন চলাচল না করলেও ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।অপর দিকে হরতাল চলাকালে সকাল সাড়ে ৮টায় শহরতলীর সাবগ্রামে ইসলামী ছাত্র শিবিরের মিছিল হয়েছে। এ সময় শিবির কর্মীরা কয়েকটি ককট্লে বিস্ফোরণ ঘটায় এবং গাছের গুড়ি ফেলে রাস্তায় ব্যারিকেট দেয় এবং রাস্তায় আগুন জ্বালায় এবং টায়ার জ্বালায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছিলে মিছিলকারীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়।

পুলিশ জানায়, সকাল আনুমানিক ১১ টায় শিবির কর্মীরা খান্দার সড়কে পিকেটিং এর সময় কয়েকটি ব্যাটারী চালিত অটো রিক্সা ভাংচুর করে। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছিলে পুলিশকে লক্ষ্য করে শিবির কর্মীরা ইট-পাটকেল ও ৫/৭টি ককটেল নিক্ষেপ করে। ককটেলের আঘাতে এ সময় ককটেলের আঘাতে পিএসআই জুলহাস সহ একজন পুলিশ সদস্য আহত হয়। পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করতে ২৫ রাউন্ড রাবাব বুলেট নিক্ষেপ ও লাঠি চার্জ করে। রাবার বুলেটে ৩জন সহ ৫জন আহত হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৭জন কে আটক করেছে। বগুড়া সদর থানার ওসি সৈয়দ শহীদ আলম জানান, পুলিশকে লক্ষ্য করে শিবির কর্মীরা ককটেল নিক্ষেপ করলে পিএসআই জুলহাস সহ ২জন পুলিশ আহত হয়। ঘটনাস্থল থেকে ৭জনকে আটক করা হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে র‌্যাব,পলিশের পাশা পাশি বিজিবি টহল জোরদার করা ছিল ।

অপর দিকে জামায়াত নেতা আলী আহসান মুজাহিদের ফাঁসির রায়ে আনন্দ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বগুড়া গণজাগরণ মঞ্চ। মিছিল শেষে সমাবেশে বক্তারা বলেছেন, ঘৃণিত যুদ্ধাপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তি জনগণের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা। কুখ্যাত রাজাকার মুজাহিদের মৃত্যুদণ্ডের রায় ঘোষণা হওয়ায় সেই প্রত্যাশা পূরণ হয়েছে।