জাতীয় রাজশাহী

পুলিশের কনষ্টেবল কোয়াটার ও এএসআই কোয়াটার নদীগর্ভে বিলীন

chohali 1দিলীপ সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃযমুনা নদীর ভাঙ্গন ও প্রবল ¯রাতের কারনে সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলা সদরের কয়েকটি সরকারী অফিসের আবাসিক ভবন নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। আরও কয়েকটি যে কোন সময় বিলীন হওয়ার আশংকা করা হচ্ছে। এসব অফিসের মালামাল অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হচ্ছে।

উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয়রা জানান, আজ ভোর সাড়ে ৫টার দিকে নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ে উপজেলা সদরের পুলিশের কনষ্টেবল কোয়াটার ও এএসআই কোয়াটারের অর্ধেক নদীগর্ভে চলে গেছে। ঝুকির মুখে পড়েছে এস,আই ও উপজেলা চেয়ারম্যানের সরকারী বাসভবন। বর্তমানে থানা ভবনের ১০ মিটার দুরত্বে নদী অবস্থান করছে। এরআগে ইউএনও’র বাসভবন নদীগর্ভে চলে গেছে। এ অবস্থায় কে কোন সময় পুরো উপজেলা সদর নদীতে বিলীন হওয়ার আশংকা করা হচ্ছে। এসব ভবনের মালামাল চৌহালী ডিগ্রি কলেজে স্থানান্তর করা হচ্ছে। ভাঙ্গন প্রতিরোধে টাঙ্গাইল পানি উন্নয়ন বোর্ড বালিভর্তি জিওব্যাগ ফেললেও তা কোন কাজে আসছে না। এদিকে কাজিপুর উপজেলার মাইজবাড়িতে নির্মাধীন নদীর ডানতীর সংরক্ষন বাধের ৭০ মিটার এলাকা নদীর প্রবলস্রাতের কারনে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। উল্লেখ গত শনিবার নদীর প্রবল ¯রাতের কারনে একই স্থানে বাধের ৫০ মিটার এলাকা ধ্বসে যায়। পরে পানি উন্নায়ন বোর্ড বাধ নির্মান কাজ বন্ধ করে দেয়।