অপরাধ ঢাকা

নরসিংদীর পলাশে দুর্ধর্ষ ডাকাতি ও চুরি

187-300x214নরসিংদী প্রতিনিধি:নরসিংদীর পলাশ উপজেলার জিনারদীতে একই রাতে দুটি দুর্ধর্ষ ডাকাতি ও দুটি চুরির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাত দল অস্ত্রের মুখে স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকাসহ প্রায় দু’লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে। ডাকাতদের হামলায় আহত হয়েছে ৩ জন। এ এস পি (সার্কেল) ও পলাশ থানার ওসি সোমবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

জানা গেছে, গত রোববার দিবাগত মধ্যরাতে পলাশ উপজেলার জিনারদী গ্রামের কার্তিক শীলের বাড়িতে ২০/২৫ জনের সশস্ত্র মুখোশধারী ডাকাত দল প্রথমে বারান্দার গ্রীলের তালা এবং দরজা ভেঙ্গে ঘরের ভিতরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে স্বর্ণালংকার, নগদ টাকাসহ প্রায় লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এসময় গৃহকর্তা কার্তিক শীল বাড়িতে ছিল না। ডাকাতদের হামলায় গৃহকর্তী হেনা শীল আহত হয়।

এর পরপরই ডাকাতদল পার্শ্ববর্তী পাঁচভাগ গ্রামে কামরুল ইসলাম ফকিরের বাড়িতে হানা দিয়ে কামরুল ইসলাম ও তার স্ত্রীকে মারধর করে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকাসহ প্রায় এক লাখ টাকার মালামাল নিয়ে যায় ।

একই রাতে জিনারদী কালীমন্দির ও রাধাকৃষ্ণ মন্দিরে দুর্ধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়। সংঘবদ্ধ চোরের দল গ্রীল ভেঙ্গে কালীমন্দির থেকে পূজার মূল্যবান সামগ্রী নিয়ে যায়। এছাড়া,সংঘবদ্ধ চোরের দল রবীন্দ্র মলিকের বাড়ির রাধাকৃষ্ণ মন্দিরে হানা দেয়। চোরের দল গ্রীল ভেঙ্গে মন্দির থেকে একটি স্টীলের আলমীরা নিয়ে গিয়ে আধা কিলোমিটার দূরবর্তী একটি কলা ক্ষেতে ফেলে তা ভেঙ্গে ভিতরে থাকা রক্ষিত মালামাল নিয়ে যায়।