রংপুর রাজনীতি

বর্তমানে অস্ত্র আর অর্থ নির্বাচনের নিয়ামক শক্তিতে পরিনত হযেছে

Rangpur_District_Map_Bangladesh-41রংপুর অফিস:জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, বর্তমানে অস্ত্র আর অর্থ নির্বাচনের নিয়ামক শক্তিতে পরিনত হয়েছে। আর এ কারণে আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু না হওয়ার আশংকা রয়েছে। রংপুর পুলিশ হলে সোমবার জাতীয় পার্টি রংপুর বিভাগীয় সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।এরশাদ বলেন, গোলাম আযমের বয়স এখন ৯৬ বছর। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল গোলাম আযমকে ৯০ বছরের কারাদন্ড দিয়েছে। এ রায় দেওয়ায় আবারও শাহবাগে গনজাগরণ মঞ্চ জেগে উঠবে। আন্দোলন সংগ্রাম দেশে সৃষ্টি হবে অস্থিতিশীল পরিবেশ।তিনি আরো বলেন, সমাজের সবস্তরেই এখন দুর্নীতি বিরাজ করছে। এটা আমার শাসনামলে ছিল না। তিনি বলেন, সংসদ সদস্যদের কুরুচিপুর্ন বক্তব্যে জাতীয় সংসদ হয়ে উঠছে প্রাণহীন ও অকার্যকর। দেশের অবস্থা ভাল নয়, চলছে সন্ত্রাস আর সংঘাত । দেশের মানুষ শান্তি চায়, চায় জাতীয় পার্টির সরকারকে। এরশাদ শান্তিপুনভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর হবে কি না তা নিয়েও আশংকা প্রকাশ হয়েছে।এরশাদ বলেন, মহাজোট থেকে না বেরিয়ে ভাল আছি। কারণ সেবে তিনি বলেন, মহাজোট থেকে বেরিয়ে এলে অন্য দল ওই সুবিধা নিত। আর আমরা প্রকাশ্যে সভা সমাবেশ করতে পারতাম না। পদে পদে বাধার সম্মুখিন হতাম। বিএনপি বড় দল হলেও জামায়াত ছাড়া তারা মাথা তুলে দাঁড়াতে পারবে না।কোটা পদ্ধতি নিয়ে আন্দোলনকারিদের সম্পর্কে এরশাদ বলেন, তারা শান্তিপুর্নভাবে আন্দোলন করছে। তাদের সে আন্দোলনে হামলা করা ঠিক হয়নি। কোটা পদ্ধতির ফলে মাত্র ৪৫ ভাগ মেধাবি চাকুরির সুযোগ হচ্ছে। যা আমাদের কারোই কাম্য নয়। এর পরিবর্তন করা উচিত বলে তিনি মন্তব্য করেন। জাপা চেয়ারম্যান নারীদের সম্পর্কে বলেন, এখনও তাদের সামাজিক, ধর্মীয়, পারিবারিক ও সামাজিক নিরাপত্তার অভাব রয়েছে। এসব কাটিয়ে নারীদের এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার সম্পর্কে এরশাদ বলেন, তাদের জনপ্রিয়তা এখন শূন্যের কোঠায়। তাদের নেতাকর্মীদের কর্মকান্ডের ফলে জনগন তাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে।

 

রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি সাবেক সাংসদ মসিউর রহমান রাঙ্গার সভাপতিত্বে প্রতিনিধি সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাপা কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ফখর-উজ-জামান জাহাঙ্গীর, তাজুল ইসলাম চৌধুরি, জাপানেতা আবুল মাসুদ চৌধুরি নান্টু, অ্যাডভোকেট সালাহ উদ্দিন কাদেরী, শাহানারা বেগম, সায়মা শাহনাজ পিংকি, রশিদুল ইসলাম, আবু নাসের মোহাম্মদ মাহাবুবার রহমান, অ্যাডভোকেট সুধির কুমার প্রমুখ।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বক্তব্য দেওয়ার আগে বিভাগের ৮ জেলার নেতারা তাদের বক্তব্যে প্রার্থী নির্বাচনের ক্ষেত্রে তৃণমুল নেতাকর্মীদের মতামত মুল্যায়নের পরামর্শ দেন। এতে করে দলের মধ্যে কোন মতবিরোধ থাকবে না, সবাই এক সাথে কাজ করবে। শনিবার এরশাদ রংপুরে আসেন। আজ মঙ্গলবার সকালে তিনি ঢাকার উদ্দেশ্যে রংপুর ত্যাগ করবেন বলে জানা গেছে।