জাতীয়

ক্যামেরা দেখলেই মুখ লুকান শফী

shafibg20130713205104 (1)সৌদি আরব করেসপন্ডেন্ট,হটনিউজটোয়েন্টিফোর.কম,রিয়াদ: ছবি তুলতে চরম আপত্তি হেফাজতে ইসলামের আমির আহমেদ শফীর। ক্যামেরা দেখলেই মুখ লুকাচ্ছেন অথবা হারাম হারাম বলে ধমক দিচ্ছেন তিনি।শনিবার সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের কোকোপাম রেস্টুরেন্টে আহমেদ শফীর রিয়াদে আগমন উপলক্ষে রিয়াদের বিশিষ্টজনদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমনটিই দেখা গেছে।আহমেদ শফীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে রিয়াদের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বিএনপি, জামায়াত, ইসলামী ঐক্যজোট, খেলাফত মজলিশ এবং স্থানীয় হেফাজত নেতারা জড়ো হন ওই রেস্টুরেন্টে।রিয়াদ প্রবাসী সাংবাদিকরা সেখানে আগে থেকে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে থাকলেও আহমেদ শফী মঞ্চে আসার সঙ্গে সঙ্গেই পাল্টে যায় দৃশ্যপট। মঞ্চে আসন গ্রহণ করতেই সাংবাদিক এবং ছবি তুলতে যাওয়া নিজ দলের কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনারা হারাম কাজটি কেন করছেন।’এসময় তিনি ছবি তোলা নিয়ে কঠোর সমালোচনা করেন।অনুষ্ঠান চলাকালীন ছবি তুলতে বাধা না দেওয়ায় অনুষ্ঠান আয়োজকদের সমালোচনাও করেন এই নেতা। তবে চেষ্টা করেও নারীদের নিয়ে বিদ্বেষমূলক মন্তব্যের বিষয়ে তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।আহমেদ শফী তার সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় বলেন, ‘প্রতিনিয়ত আমার কাছে লোক আসে কর্মসূচি দেওয়ার জন্য। রোজার পর কর্মসূচি দেওয়া হবে।’শাহবাগ আন্দোলনের কঠোর সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘অনেক ভাইয়েরা ওই সময় বাংলাদেশে ছিলেন। সরকার নাস্তিকদের একটি দলকে সেখানে জায়গা দিয়েছে। সেখানে ছেলে-মেয়ে একসঙ্গে কত কি করেছে সেটা আপনারা দেখেছেন।’বর্তমান সরকারকে নাস্তিক আখ্যা দিয়ে তাদের বিরুদ্ধে জান এবং মাল দিয়ে জিহাদ করার প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য প্রবাসী আলেমদের প্রতি আহ্বান জানান আহমেদ শফী।