অর্থ ও বাণিজ্য

বিশ্বব্যাংক’র ২১৩ মিলিয়ন ডলার সাহায্য অনুমোদন

wb1_13892হটনিউজ২৪বিডি.কম : বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশের জন্য ২১৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার সাহায্য অনুমোদন করেছে। আবহাওয়া ও জলবায়ু তথ্য সেবা খাতের দুটি প্রকল্প এবং জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন কলেজের জন্য এ অর্থ সাহায্য দেয়া হচ্ছে। সংস্থাটির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, মোট সহায়তার মধ্যে ১১৩ মিলিয়ন ডলার আবহাওয়া ও জলবায়ুর পূর্বাভাস সংক্রান্ত প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে। প্রকল্পের মাধ্যমে সাধারন মানুষ, বিশেষ করে কৃষকদের জলবায়ু সম্পর্কিত সেবা প্রদান করা হবে। আর বাকি ১০০ মিলিয়ন ডলার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় স্বীকৃত সরকারি ও বেসরকারি কলেজসমূহে পরিবেশ বিষয়ক শিক্ষাক্রমের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ, ভুটান ও নেপালের জন্য বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর কিমিও ফ্যান বলেন, বাংলাদেশকে ২০২১ সাল নাগাদ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হতে হলে অগ্রাধিকারমূলক খাতগুলোতে গুরুত্ব দিতে হবে। তিনি বলেন, এগুলোর মধ্যে রয়েছে- দক্ষ ও প্রতিযোগিতামূলক কর্মক্ষেত্র সৃষ্টি, আওহাওয়া নির্ভর খাতগুলো, বিশেষত জলবায়ু পরিবর্তনগত অনিশ্চয়তা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ সংক্রান্ত প্রস্তুতি ও মোকাবিলা। তিনি বলেন, এ দুটি প্রকল্প সংশ্লিষ্ট জনগোষ্টির উপার্জন বৃদ্ধির পাশাপাশি দারিদ্র বিমোচনে সহায়ক হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এ প্রকল্পের আওতায় চরমভাবাপন্ন আবহাওয়া বিরাজ করে এমন কয়েকটি জেলায়, যেমন- রাজশাহী, নওগাঁ, নেত্রকোনা ও সুনামগঞ্জে এলাকা ভিত্তিক জনগোষ্ঠির মধ্যে বড় ধরনের দুর্যোগ সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টি ও পূর্বাভাস দেয়া হবে। এছাড়াও এর আওতায় দেশের ৪৮৭ টি উপজেলার ৪ হাজার ৫১টি ইউনিয়ন পরিষদে কৃষি-আবহাওয়া তথ্য কেন্দ্র স্থাপন করা হবে। এর মাধ্যমে কমপক্ষে ৩ লাখ কৃষক উপকৃত হবেন।

অন্যদিকে বাংলাদেশের ২ তৃতীয়াংশ শিক্ষার্থী কলেজ পর্যায়ে পড়াশোনা করে। কলেজ এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট-এর আওতায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদিত কলেজগুলোতে ¯œাতক ও ¯œাতকোত্তর পর্যায়ে শিক্ষার মানোন্নয়নে সহায়ক হবে। কলেজগুলোর কৌশলগত পরিকল্পনা ও ব্যবস্থাপনায় সক্ষমতা বৃদ্ধিও এর উদ্দেশ্য। এর পাশাপাশি, সরকারি কলেজগুলোতে শিক্ষকদের শূন্যপদসমূহ পূরণ এবং ৮ হাজার কলেজ শিক্ষক ব্যবস্থাপকদের প্রশিক্ষন দানও এর উদ্দেশ্য।