অপরাধ ঢাকা

গৃহবধুকে যৌতুকের জন্য নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ

images (3)শরীয়তপুর সংবাদদাতা : শরীয়তপুরের জাজিরায় এক গৃহবধুকে যৌতুকের জন্য নির্যাতনের পর মুখে বিষ ঢেলে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। লাশ ময়না তদন্ত শেষে পারিবারিক কবর স্থানে দাফন করা হয়েছে।

নিহতের চাচা দানেস মাদবর জানান, শরীয়তপুর জেলার জাজিরা উপজেলার বিকে নগর ইউনিয়নের সামাদ মাদবরের মেয়ে সুমা বেগমের সঙ্গে একই উপজেলার বড় কান্দি ইউনিয়নের ডুবিসায়বর গ্রামের বোরহান সরদারের সঙ্গে দেড় বছর পূর্বে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন অজুহাতে যৌতুক লোভি স্বামী বোরহান সরদার তার স্ত্রীর কাছে যৌতুক দাবী করে আসছে। সুমার অসহায় পিতা ধার দেনা করে ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দেয়। এর পর গতকাল বুধবার আবার যৌতুক দাবী করলে সুমার সঙ্গে ঝগড়া হয়।এক পর্যায় সুমাকে পিটিয়ে ও নির্যাতন করে মারাত্মক আহত করে। গৃহবধু সুমা বেগমকে অসুস্থ অবস্থায় তার মুখে বিষ ঢেলে দিয়ে জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সে বুধবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। নিহতের স্বজনদের দাবী যৌতুকের জন্য তার স্বামী স্ত্রীকে নির্যাতন করে মুখে বিষ ঠেলে আত্মহত্যা বলে অপপ্রচার করছেন। শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নিহতের লাশ ময়না তদন্তের পর পারিবারিক কবর স্থানে দাফন করা হয়েছে। এ ব্যাপারে জাজিরা থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জাজিরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ নাজমুল ইসলাম বলেন, নিহত গৃহবধুর শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন নেই। তবে পারিবারিক কলহের জের ধরে বিষ পান করে আত্মহত্যা করতে পারে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন আসলে বিষয়টি জানা যাবে।