জাতীয়

১৯৬ শতাংশ ভোট পড়ার সংবাদ সঠিক নয়: ইসি

৮নিজস্ব প্রতিবেদক, হটনিউজ২৪বিডি.কম ২৮ এপ্রিল : কয়েকটি দৈনিকে তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে সর্বোচ্চ ১৯৬ শতাংশ ভোট পড়েছে বলে বুধবার খবর প্রকাশিত হয়েছে। যা সত্য নয় বলে দাবি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

বুধবার বিকেলে ইসির জনসংযোগ পরিচালক এসএম আসাদুজ্জামান স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ দাবি করে সংস্থাটি।

এতে বলা হয়েছে, কয়েকটি দৈনিকের ২৭ এপ্রিল ২০১৬, সংখ্যায় ইউপি নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে সর্বোচ্চ প্রদত্ত ভোট ১৯৬ শতাংশ বিষয়ক খবর প্রকাশিত হয়েছে।

খবরে আরো বলা হয়েছে- খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলার বেলছড়ি ইউপিতে সর্বোচ্চ ভোটের হার দেখানো হয়েছে ১৯৬ শতাংশ। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ হিসেবে নওগাঁ জেলার নিয়ামতপুর উপজেলার চন্দননগর ইউপিতে ১০৭ শতাংশ ভোট পড়েছে। এছাড়া মাটিরাঙ্গার গোমতি ইউনিয়নে ৯৮.৫৭ শতাংশ ভোট পড়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, খবরে প্রকাশিত ওই তথ্য সঠিক নয়। প্রকৃত তথ্য হলো- বেলছড়ি ইউপিতে ভোট প্রদানের হার ৭৪.২২ শতাংশ এবং চন্দননগর ইউনিয়নে ভোট প্রদানের হার ৮৫.৪৯ শতাংশ। এছাড়া গোমতি ইউনিয়নে ভোট প্রদানের হার ৮২.৩ শতাংশ।

রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক প্রেরিত তথ্যের বরাত দিয়ে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলার বেলছড়ি ইউনিয়নের ফলাফল অনুযায়ী এ ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ৮ হাজার ২৬৬ জন। এদের মধ্যে ভোট প্রদান করেছেন ৬ হাজার ১৩৫ জন। যা মোট ভোটের ৭৪.২২ শতাংশ।

নওগার নিয়ামতপুর উপজেলার চন্দননগর ইউনিয়নের মোট ভোটার সংখ্যা ১৯ হাজার ৩১০ জন। এদের মধ্যে ভোট প্রদান করেছেন ১৬ হাজার ৫০৯ জন। যা মোট ভোটের ৮১.৮৫ শতাংশ। এছাড়া খাগড়াছড়ির জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলার গোমতি ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ৭ হাজার ৮৬৬ জন। এদের মধ্যে ভোট পড়েছে ৬ হাজার ৪৭৪টি। যা মোট ভোটের ৮২.৩ শতাংশ।

এজন্য নির্বাচন বিষয়ে অনুমোদনবিহীন, আংশিক, অসত্য ও বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রকাশ করে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি না করার জন্যও বিজ্ঞপ্তিতে সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।
হটনিউজ২৪বিডি.কম/এআর