বরিশাল ভোলা লাইফ স্টাইল

ভোলা-ঢাকা রুটে অত্যাধুনিক জাহাজ ‘ক্রিস্টাল ক্রজ’

dd07a946-ba9f-41a0-9c70-10a77d2c8306ভোলা প্রতিনিধি:  ভোলা-ঢাকা নৌ-পথে প্রথম বারের মতো চালু হলো অত্যাধুনিক ও দ্রুতগতির যাত্রীবাহী নৌ-যান এম ভি ক্রিস্টাল ক্রজ। ২৬ এপ্রিল মঙ্গলবার বিকেলে জাহাজটি যাত্রা শুরু করে। বিলাশবহুল এ জাহাজটির পরিচালনা ও ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে এ রহমান এ্যান্ড সন্স। এর আগে গত ২১ এপ্রিল দোয়া-মোনাজাতের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন করা হয়।
জাহাজটির মালিক পক্ষ এ রহমান এ্যান্ড সন্স সূত্র জানায়, ২শ’ ৪৪ ফুট দৈর্ঘ্যে এবং ৪২ ফুট প্রসস্ত ‘ক্রিস্টাল ক্রজ’ নামের এই নৌ-যানটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে প্রায় ১৩ কোটি টাকা। ৭৫০ আর.পি.এম স্প্রিড সম্পন্ন এ জাহাজটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ২টি জাপানি মেরিন ডিজেল ইঞ্জিন। দুর্ঘটনা এড়াতে নৌ-যানটির নিচের অংশে একাধিক স্তরের মেরিন কোয়ালিটির মাইল্ড স্টিল ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়া উপরের অংশে স্টিলের পাশাপাশি ব্যবহার করা হয়েছে প্লাস্টিক বোর্ড, এস এস, গ্লাস ও রট আয়রন।
জাহাজে উঠে দোতলার শুরুতেই বসার লবি ও মখমলের ওয়াক-ওয়ের দু’পাশে দরজা খুললেই এক একটি অভিযাত শয়ন কক্ষ। অনেকটা পাঁচ তারা হোটেল সাদৃশ্য অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধা সংবলিত বিলাশবহুল এ জাহাজে যাত্রী বহন করার জন্য এমন কক্ষ রয়েছে ৮৩টি। যার মধ্যে সিঙ্গেল রয়েছে ৩৩টি ও এটাচ বাথ ৩৭টি। কক্ষগুলোতে এলইডি টিভি ও যাত্রীদের জন্য পর্যাপ্ত লাইফ জ্যাকেটের ব্যবস্থা থাকবে। কক্ষের পাশাপাশি সাধারণ যাত্রীদের জন্য কম খরচে থাকছে আরামদায়ক আসন ব্যবস্থা। জাহাজটির যাত্রী ধারণ ক্ষমতা রয়েছে ৫শ’ ১ জন। তবে দিনে এ জাহাজটি ৭শ’ ৫০ জন যাত্রী বহন করতে সক্ষম।
সূত্র আরও জানায়, জাহাজটিতে থাকছে টিভি বিনোদন, ফুড কর্নার, অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা, ৪শ’টি লাইফ বয়া ও জ্যাকেট, থাকছে চার তলায় বসে নয়নাভিরাম প্রকৃতিক দৃশ্য অবলোকনের সু-ব্যবস্থা ও শিশুদের জন্য প্লে-গ্রাউন্ড। এছাড়া যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে থাকবে সিসি ক্যামেরা। আর জাহাজের ভেতরে ৭৫ জন কর্মী সার্বক্ষণিক যাত্রীদের সেবা প্রদান করবে।
এ রহমান এন্ড সন্স’র কর্ণধর মোহাম্মদ আসিফ আলতাফ জানান, শুধু ব্যবসায়িক মনোভাব নিয়ে এইরকম একটা শৈল্পিক সৃষ্টি সম্ভব নয়। আমরা জনগনের সুযোগ-সুবিধার কথা সবার আগে বিবেচনা করি। যার প্রমাণ আমরা বিগত দিনেও দিয়েছি। এই জাহাজটিকে আমাদের জাহাজ বলতে আমি রাজি নই। উন্নত সেবা দানের মাধ্যমে এটি ভোলাবাসীর ভালোবাসা হয়ে বেঁচে থাকবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। এদিকে ভোলা-ঢাকা নৌ-পথে ‘ক্রিস্টাল ক্রজ’ নামের অত্যাধুনিক এ নৌ-যানটি চালু হওয়ার খবরে ভোলার মানুষ সন্তোষ প্রকাশ করেছে।