সারাদেশ

৭৩৩ ইউপিতে ভোট ২৮ মে

৪নিজস্ব প্রতিবেদক, হটনিউজ২৪বিডি.কম ২৩ এপ্রিল : পঞ্চম ধাপের ৭৩৩টি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বৃহস্পতিবার ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী এসব ইউপিতে ভোট গ্রহণ হবে আগামী ২৮ মে। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২ মে। তবে চতুর্থ ধাপের মতো পঞ্চম ধাপের তফসিল ঘোষণা নিয়ে অব্যবস্থাপনা দেখা দিয়েছে ইসি সচিবালয়ের কাজে।

পঞ্চম ধাপের তফসিলের বিষয়ে ইসির জারি করা প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী ৪-৫ মে মনোনয়নপত্র বাছাই করবেন রিটার্নিং অফিসাররা। ৬-৮ মে আপিল দাখিল, ৯-১১ মে আপিল নিষ্পত্তির সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ১২ মে। আগামী ১৩ মে চূড়ান্ত প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ করা হবে। ইসির জেলা নির্বাচন কর্মকর্তাদের স্থানীয়ভাবে নির্বাচনী তফসিল প্রজ্ঞাপন আকারে জারি করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পঞ্চম ধাপে ৭১৪টি ইউপির তফসিল ঘোষণার কথা থাকলেও শেষ মুহূর্তে এসে আরো ১৯ ইউপি যুক্ত করা হয়েছে।

ইসি সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, নির্বাচন কমিশন কর্তৃক নির্দেশিত এবং সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার/জেলা নির্বাচন অফিসার প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ধার্যকৃত নির্বাচনী সময়সূচি সম্বলিত প্রজ্ঞাপনটি স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) নির্বাচন বিধিমালা ২০১০-এর বিধি ১০ অনুসারে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের নোটিস বোর্ডে, ইউনিয়ন পরিষদের সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড এলাকার গুরুত্বপূর্ণ ও প্রকাশ্য স্থানে এবং রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে স্থানীয়ভাবে টানিয়ে প্রকাশ করবে।

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য ৪০ দলের মধ্যে ২৪টি রাজনৈতিক দল কমিশনে প্রার্থী প্রত্যয়নের ক্ষমতাপ্রাপ্ত ব্যক্তির নাম ও নমুনা স্বাক্ষর জমা দিয়েছিল। এর মধ্যে ৮টি রাজনৈতিক দল প্রথম ধাপে কোনো প্রার্থী দেয়নি। চার ধাপে এ পর্যন্ত ১৪৬ জন আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া প্রায় চারশ ইউপিতে বিএনপির কোনো প্রার্থী ছিল না। নির্বাচনী সহিংসতায় এ পর্যন্ত অর্ধশতাধিক প্রাণহানি ঘটেছে। আহত হয়েছে কমপক্ষে দুই হাজারের মতো। ইউপি নির্বাচন নিয়ে নির্বাচন কমিশনে দেড় হাজারের মতো অভিযোগ জমা পড়েছে; কিন্তু কমিশন কোনো অভিযোগের বিষয়ে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করছে না।

এর আগে গত ১১ ফেব্রুয়ারি প্রথম ধাপে ৭৫২টি ইউপির তফসিল ঘোষণা করেছিল কমিশন। তবে আইনী জটিলতার কারণে ওই ধাপে ৭২৫টি ইউপিতে ভোট অনুষ্ঠিত হয়। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় ধাপে ৬৮৪টি ইউপির তফসিল ঘোষণা করা হয়েছিল। তবে এই ধাপেও আইনী জটিলতায় ৩১ মার্চ নির্বাচন হয় ৬৩৯টি ইউপিতে। গত ১৫ মার্চ তৃতীয় ধাপে ৬৮৫টি ইউপির তফসিল ঘোষণা করা হয়। আগামীকাল ২৩ এপ্রিল এ ধাপে ৬২০টি ইউপিতে ভোট অনুষ্ঠিত হবে। গত ২৭ মার্চ চতুর্থ ধাপে ৭৪৩টি ইউপির তফসিল ঘোষণা হয়। আগামী ৭ মে এ ধাপে ৭২৫টি ইউপিতে ভোট হবে। এছাড়া আগামী ৪ জুন ষষ্ঠ ধাপের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

হটনিউজ২৪বিডি.কম/এআর