হটনিউজ স্পেশাল

আজ দুসপ্তাহের মজুরি, আন্দোলন করলে ব্যবস্থা

১নংনিজস্ব প্রতিবেদক, হটনিউজ২৪বিডি.কম ১৩ এপ্রিল : আজ বুধবার বাংলাদেশ জুট মিলস করপোরেশনের (বিজেএমসি) নিজস্ব তহবিল থেকে পাটকল শ্রমিকদের দুই সপ্তাহের মজুরি দেয়া হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন পাট ও বস্ত্র প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম।

একইসঙ্গে বুধবার থেকে যে শ্রমিকরা আন্দোলন করবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

মঙ্গলবার বিকেলে সচিবালয়ে পাটকল শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকের এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

এদিকে পাটকল শ্রমিকদের বৈঠকে পাট প্রতিমন্ত্রী এ ঘোষণা দিলেও খুলনায় আন্দোলনরত শ্রমিকরা বকেয়া বেতন আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। তাদের সঙ্গে বুধবার বেলা আড়াইটার দিকে প্রতিমন্ত্রীর বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

পাটকল শ্রমিকদের সমস্যা নিয়ে বিকেল পৌনে ৪টার দিকে বৈঠক শুরু হয়। পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী ইমাজুদ্দিন প্রামাণিক ও প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজমের সঙ্গে বৈঠকে যোগ দেন সরকার সমর্থিত পাটকল শ্রমিক নেতা মহব্বত আলী, মাহবুব আলী, গোলাম মোস্তফাসহ প্রায় ২৫সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল। পরে বিকেল ৫টার দিকে সচিবালয়ে আসেন খুলনায় আন্দোলনরত শ্রমিকদের সংগঠন ‘ঐক্য পরিষদের’ আহ্বায়ক সোহরাব হোসেনের নেতৃত্বে একটি শ্রমিক প্রতিনিধিদল। তারা মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে যোগদান থেকে বিরত থাকেন।

এমনকি পাটকল শ্রমিকনেতাদের যারা বৈঠকে অংশ নেন তাদের শ্রমিকলীগ নেতা দাবি করে তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসতে অনীহা প্রকাশ করেন খুলনা থেকে আগত ‘ঐক্য পরিষদের নেতারা। বৈঠক শেষে একপর্যায়ে  শ্রমিকলীগের কিছু নেতা ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক সোহরাব হোসেনের দিকে তেড়ে যায়। এ সময় দুপক্ষের মধ্যে হাতাহাতি ও ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। পরে মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

এ সময় শ্রমিকনেতা সোহরাব হোসেন তার গায়ে হাত তোলা হয়েছে অভিযোগ করে খুলনায় পাটকল শ্রমিক আন্দোলন চালিয়ে যাবার ঘোষণা দেন।

তিনি অভিযোগ করেন, ‘মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের কথা বলে আমাদের ঢাকায় ডেকে এনে মার দেওয়া হয়েছে। কাল আড়াইটায় মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক হবে। সেখান থেকে সিদ্ধান্ত আসার আগ পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।’

অন্যদিকে বৈঠক শেষে প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারি পাটকলের উন্নয়ন এবং আন্দোলনরত শ্রমিকের বকেয়া মজুরি ও ভাতা পরিশোধের জন্য বিজেএমসিকে এক হাজার কোটি টাকা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। অর্থমন্ত্রণালয় থেকে এ অর্থ পেতে কিছুটা সময় লাগবে। তাই বস্ত্র ও পাটমন্ত্রণালয়ের নিজস্ব তহবিল থেকে আগামীকাল বুধবার শ্রমিকদের দুই সপ্তাহের মজুরি পরিশোধ করা হবে। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা দেওয়া এক হাজার কোটি টাকার বরাদ্দ হাতে পাওয়ার পর শ্রমিকদের সব বকেয়া পরিশোধ করে দেওয়া হবে।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পরও খুলনায় পাটকল শ্রমিকরা আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। যা অত্যন্ত দুঃখজনক। বুধবার দুই সপ্তাহের মজুরি দেয়া হবে। এরপরও যারা আন্দোলনে থাকবেন তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

পাটকল শ্রমিকদের আন্দোলন পরিহার করে কাজে যোগ দেয়ারও আহ্বান জানান প্রতিমন্ত্রী।

বৈঠকে পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী ইমাজুদ্দিন প্রামাণিক ছাড়াও মন্ত্রণালয়ের সচিব এম এ কাদের, বিজেএমসির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল খালেদসহ শ্রমিকনেতারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বকেয়া মজুরিসহ নানা দাবিতে মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে ১২ ঘণ্টার রাজপথ–রেলপথ অবরোধ শুরু করে রাষ্ট্রায়ত্ত জুটমিল সিবিএ-নন সিবিএ ঐক্য পরিষদ। খালিশপুর, নতুন রাস্তার মোড় ও আটরা শিল্প এলাকার ইস্টার্ন গেট মোড়ে খুলনা অঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ত ৭টি পাটকলের শ্রমিকরা অংশ নেয় এই আন্দোলনে।
হটনিউজ২৪বিডি.কম/এআর