রাজনীতি

স্বাধীন বাংলাদেশে রাজাকাররা শয়তানের মতো : তথ্যমন্ত্রী

1459861800নিজস্ব প্রতিবেদক, হটনিউজ২৪বিডি.কম ৫ এপ্রিল : তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, স্বাধীন বাংলাদেশে রাজাকাররা হলো শয়তানের মতো। রাজাকার বুড়া হলেও বদলায় না। আমি আমৃত্যু রাজাকারকে রাজাকার বলবোই। যারা রাজাকারদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে স্বাধীনতা দিবস পালন করেন তারা নব্য রাজাকার। আর যারা তাদের সঙ্গে নিয়ে ২১ ফেব্রুয়ারি পালন করেন তারা পাকিস্তানি ভুত।

মঙ্গলবার দুপুরে নারায়গঞ্জ জেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে তিনি জেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে ‘৫২ থেকে বাংলাদেশ’ টেরাকোটার ম্যুরালের উদ্বোধন করেন। নারায়গঞ্জ জেলা পরিষদের উদ্যোগে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে সম্মাননা ও চেক প্রদানের জন্য ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে সমালোচনা অনেকে বলেন- আমি কঠিন কঠিন কথা বলি। চিন্তা করে দেখলাম আমি কি বলি। সকালে ঘুম থেকে উঠে রাজাকার যুদ্ধাপরাধীদের গালি দেই। স্বাধীন বাংলাদেশে রাজাকাররা হলো শয়তানের মতো। রাজাকার বুড়া হলেও বদলায় না। আমি আমৃত্যু রাজাকারকে রাজাকার বলবোই। যারা রাজাকারদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে স্বাধীনতা দিবস পালন করেন তারা নব্য রাজাকার। আর যারা তাদের সাথে নিয়ে ২১ ফেব্রুয়ারি পালন করে তারা পাকিস্তানি ভুত। আমি ক্ষমতার জন্য খুনিদের সঙ্গে কখনো আপোষ করি নাই। এজন্য দীর্ঘদিন ক্ষমতার বাহিরে ছিলাম। ৭৫ এ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে হত্যা না করলে আমরা অনেক এগুতাম। বর্তমান জাতির জনকের কন্যার নেতৃত্বে আমরা অনেকদূর এগুচ্ছি। আমাদের আরো এগুতে হবে। যারা বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করেছে তাদের চেহারায় রাজাকারের ছাপ ছিল। ওরা ইতিহাস বিকৃত করেছে খুনি রাজাকারদের মহিমান্বিত করেছে সাম্রাজ্যবাদের দালালী করেছে। আমাদের যুদ্ধ এখনো শেষ হয়নি। আমাদের যুদ্ধ ৭১ এর সেই রাজাকার, জঙ্গি, খুনিদের বিরুদ্ধে।

নারায়গঞ্জ জেলা পরিষদের প্রশাসক আবদুল হাইয়ের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) গাউছুল আজম,  নারায়গঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সাবেক জেলা কমান্ডার সামিউল্লাহ মিলন, নারায়ণগঞ্জ  জেলা জাসদের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর সাত্তার, সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা মোহর আলী চৌধুরী, জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মেরাজ হোসেন, জেলা পরিষদের প্রধান সহকারী রেজাউল করিম রানা প্রমুখ।
হটনিউজ২৪বিডি.কম/এআর