খেলা

আইরিশদের বিপক্ষে ওমানের দুর্দান্ত জয়

৪০.ক্রীড়া ডেস্ক, হটনিউজ২৪বিডি.কম ১০ মার্চ :  আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে ‘এ’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে নেদারল্যান্ডসকে হারিয়েছে বাংলাদেশ। দিনের অপর ম্যাচে জয় পেয়েছে একই গ্রুপে থাকা ওমান। দুর্দান্ত খেলেই আইরিশদের বিপক্ষে দুই বল হাতে রেখে ২ উইকেটের জয় তুলে নেয় ওমান।

ধর্মশালায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চতুর্থ ম্যাচে আগে ব্যাট করে আয়ারল্যান্ড নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে তোলে ১৫৪ রান। জবাবে, শুরুটা দুর্দান্ত করলেও মাঝে খেই হারিয়ে ফেলে ওমান। তবে, শেষ দিকে দলকে জয়ের পথে নিতে থাকেন ব্যাটে ঝড় তোলা আমির আলি। ১৯.৪ ওভার খেলেই জয় তুলে নেয় ওমান।

আইরিশদের হয়ে ইনিংস সর্বোচ্চ ৩৮ রান করেন তিন নম্বরে ব্যাট হাতে নামা উইলসন। ৩৪ বলে ৫টি বাউন্ডারিতে এ ইনিংস সাজান তিনি। দলের ওপেনার ও দলপতি পোর্টারফিল্ড ২৮ বলে ২৯ আর আরেক ওপেনার পল স্টারলিং ২২ বলে ২৯ রান করেন। পোর্টারফিল্ডের ইনিংসে ছিল তিনটি চার আর একটি ছক্কা। এদিকে, স্টারলিং ৬টি চার হাঁকান।

এছাড়া নিয়াল ও’ব্রাইন ১৬, কেভিন ও’ব্রাইন ১৪, পয়েন্টার ১১ আর ম্যাকব্রাইন ১০ রান করেন।

ওমানের হয়ে ৪ ওভারে ৩৭ রান খরচায় তিনটি উইকেট তুলে নেন মুনিস আনসারি।

১৫৫ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে ওমান বেশ ভালোই জবাব দেয়। ওপেনিং জুটি থেকে জিসান মাসুদ ও খাওয়ার আলি ৬৯ রান তুলে নেন। জিসান ৩৩ বলে ৬টি বাউন্ডারিতে ৩৮ ও খাওয়ার ২৬ বলে ৪টি চার আর দুটি ছক্কায় ৩৪ রান করেন। দুই ব্যাটসম্যানকেই ফেরান কেভিন ও’ব্রাইন।

১৩তম ওভারে আদনান ইলিয়াসকে (৪) ফেরান সোরেনসেন। ১৪তম ওভারে জোড়া আঘাত হানেন ম্যাকব্রাইন। তৃতীয় বলে মেহরান খানকে (২) ফিরিয়ে দিয়ে ওভারের শেষ বলে আমির কলিমকে (০) এলবির ফাঁদে ফেলেন ম্যাকব্রাইন।

দলীয় ৬৯ রান থেকে ৯০ রান তুলতেই টপঅর্ডারের পাঁচ ব্যাটসম্যানকে হারায় ওমান। এরপর জুটি গড়েন আমির আলি ও জাতিন্দার সিং। ব্যাটে ঝড় তুলেন আমির। ইনিংসের ১৯তম ওভারে রানকিনের বলে বোল্ড হন ২৬ বলে ২৪ রান করা জাতিন্দার। তবে, আউট হওয়ার আগে আমিরকে সঙ্গ দিয়ে তারা ২৫ বলে ৪৭ রানের জুটি গড়েন।

১৯তম ওভারেই নতুন নামা সুলতান আহমেদ (১) রান আউট হয়ে ফেরেন। শেষ ওভারে জয়ের জন্য ওমানের প্রয়োজন হয় ১৪ রান। সোরেনসেনের প্রথম বলটি ‘নো’ হলে বাউন্ডারি হাঁকান আমির। পরের বলে একটি লেগ বাই হয়। সোরেনসেনের দ্বিতীয় বলে চার মেরে দেন নতুন নামা লালচেতা। তৃতীয় বলে সিঙ্গেল নেন তিনি। চতুর্থ বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন আমির। আউট হওয়ার আগে তিনি ১৭ বলে ৫টি চার আর একটি ছক্কা হাঁকিয়ে করেন ৩২ রান।

শেষ দুই বলে ২ রান দরকার হয় ওমানের। সোরেনসেনের পঞ্চম বলটি ফুলটস হলে ‘নো’ বলে ৫ রান পায় ওমান। এক বল হাতে রেখেই জয় তুলে নেয় দুর্দান্ত খেলা ওমান।
হটনিউজ২৪বিডি..কম/এআর