প্রধান খবর

প্রমোশন ফাইলে মেয়েদের নাম না থাকলে সই করব না

৫০.নিজস্ব প্রতিবেদক, হটিনউজ২৪িবিড.কম ২৮ ফেব্রুয়ারি : দেশের নারীদের এগিয়ে নিয়ে যেতে কাজ করছে সরকার এমন মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘একসময় আমি বলতে বাধ্য হয়েছি, যদি কোনো প্রমোশন বা কোনো ফাইলে মেয়েদের নাম না থাকে, তাহলে আমি ওই ফাইল সই করব না।’ শনিবার বিকেলে রাজধানীর বেইলি রোডে মহিলা সমিতির নবনির্মিত কমপ্লেক্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা সব জায়গায় মেয়েদের একটি অবস্থান করে দেওয়ার জন্য কাজ করছি। কারণ আমরা কোনোদিকে পিছিয়ে থাকতে চাই না। আমাদের মেয়েরা যখন যে জায়গায় সুযোগ পাচ্ছে, সেখানেই অত্যন্ত দক্ষতার পরিচয় দিয়ে যাচ্ছে। এটাই আমার গলার জোর বৃদ্ধি করছে।’

নারী উন্নয়নে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আজ সমাজে নারীদের যে অবস্থান, সেটা জাতির পিতাই করে দিয়ে গেছেন। সে কারণে, আমরা যখন সরকার গঠন করেছি, নারীদের উন্নয়নে মনোযোগ দিয়েছি এবং পদক্ষেপ নিয়েছি।’

এ সময় নাট্য অন্দোলনের ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার দেশে বিশ্বমানের একটি অত্যাধুনিক ডিজিটাল থিয়েটার নির্মাণের উদ্যোগ নেবে। তিনি বলেন, ‘দেশে একটাও বিশ্বমানের অত্যাধুনিক ডিজিটাল থিয়েটার নেই। আমরা তা প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেব।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, অর্থমন্ত্রী এ বিষয়ে আগ্রহী। কাজেই টাকা-পয়সার সমস্যা হবে না। এই অত্যাধুনিক থিয়েটার হলটি এখানে অথবা পদ্মা সেতুর কাছে যে কনভেনশন সেন্টার নির্মাণ করা হচ্ছে সেখানেও নির্মাণ করা যেতে পারে।

দেশের সাংস্কৃতিক আন্দোলনের বিকাশে নাট্যচর্চার বিরাট ভূমিকার উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পর যখন মতামত প্রকাশের ক্ষেত্রে বাধা ছিল, তখন নাটকের মাধ্যমেই বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিবাদ জানানো হয়েছিল।’

এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনে নাটক নীল দর্পণের ঐতিহাসিক ভূমিকাসহ ভোট ও ভাতের আন্দোলন, স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনসহ দেশের সকল গণআন্দোলনে নাট্য আন্দোলনের গৌরবজ্জ্বল ভূমিকার উল্লেখ করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ডা. মো. মোজাম্মেল হোসেন। সমিতির সভাপতি সিতারা আহসান উল্লাহ অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদিকা তানিয়া হক প্রধানমন্ত্রীকে মহিলা সমিতির পক্ষে ক্রেস্ট উপহার দেন এবং অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

অনুষ্ঠানে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, মন্ত্রী পরিষদ সদস্যবর্গ, সংসদ সদস্যবৃন্দ, উচ্চ পদস্থ সরকারি কর্মকর্তাবৃন্দ, কূটনৈতিক মিশনের সদস্যবৃন্দ এবং উন্নয়ন সহযোগী প্রতিষ্ঠানের কমৃকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
হটনিউজ২৪বিডি.কম/ এআর