বরিশাল ভোলা

প্রচার-প্রচারণায় এগিয়ে জাহিদুল হক শুভ

indexএম. শরীফ হোসাইন, ভোলা: আগামী ২২ মার্চ ভোলায় আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। প্রথম দফায় ভোলায় ৪৪টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সময় যতই ঘনিয়ে আসছে, ততই প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত হয়ে পড়ছেন প্রার্থীরা। প্রার্থীরা দলীয় মনোনয়ন পেতে দলের প্রাভাবশালী নেতাদের সঙ্গে জোর লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন। ভোলা সদর উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। সম্ভাব্য প্রার্থীরা ভোট সংগ্রহের কৌশল হিসেবে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন ধর্মীয় ও সামাজিক কার্যক্রমে যোগদান, ভোটারদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করে যাচ্ছেন। ভোটাররাও প্রার্থীদের শিক্ষা-দীক্ষা ও সততা-দক্ষতার পাশাপাশি কে কতটা উন্নয়ন করতে পারবে তার বিশ্লেষণ করছেন। এই প্রচার-প্রচারণায় একাধিক ব্যক্তির নাম শোনা গেলেও তাদের মধ্যে এগিয়ে রয়েছেন তরুণ রাজনীতিবিদ, সৎ সমাজ সেবক জাহিদুল হক শুভ।
সূত্রে জানা যায়, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে সম্ভাব্য প্রার্থীরা তাদের মনোনয়ন দৌড়ের পাশাপাশি ভোটারদের কাছ থেকে দোয়া নিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। এর সাথে সাথে প্রার্থীরা দলীয় মনোনয়ন পেতে দলের প্রাভাবশালী নেতাদের সঙ্গে জোর লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন। ভোলা সদর উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। সম্ভাব্য প্রার্থীরা ভোট সংগ্রহের কৌশল হিসেবে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন ধর্মীয় ও সামাজিক কার্যক্রমে যোগদান, ভোটারদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করে যাচ্ছেন। ভোটাররাও প্রার্থীদের শিক্ষা-দীক্ষা ও সততা-দক্ষতার পাশাপাশি কে কতটা উন্নয়ন করতে পারবে তার বিশ্লেষণ করছেন। এরই অংশ হিসেবে ভোলা সদর উপজেলার ৮নং আলীনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থীরা উঠে-পড়ে লেগে গেছেন প্রচার-প্রচারণায়। তারা সকাল থেকে মধ্য রাত পর্যন্ত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন মন জয় করার জন্য। কেউবা সরাসরিভাবে কাজ করছেন, আবার কেউবা গোপনীয়তা বজায় রেখে কাজ করে যাচ্ছেন। তবে প্রার্থীরা বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বাজার-এলাকায়, ওয়ার্ডে প্রচারণা ও শো-ডাউন করলেও পুরোপুরি প্রচারণায় নামবেন ৩ মার্চ প্রতীক বরাদ্দের পর। প্রচার-প্রচারণায় একাধিক ব্যক্তির নাম শোনা যাচ্ছে। তাদের মধ্যে রয়েছেন ভোলা সদর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী মিয়া পরিবারের সন্তান পৌর মেয়র আলহাজ্ব মোঃ মনিরুজ্জামান মনিরের ভগ্নিপতি ও অত্র ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম আবি আবদুল্লাহ খসরু মিয়ার ভাতিজা তরুণ রাজনীতিবিদ, সমাজ সেবক, সৎ, আদর্শবান পুরুষ মোঃ জাহিদুল হক শুভ, জেলা আওয়মীলীরে যুগ্ম সম্পাদক ও বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ বশির আহমেদ, বঙ্গবন্ধু সৌনিকলীগ ভোলা জেলা শাখার আহ্বায়ক মহসীন সিকদার, ইউনিয়ন আওয়ামীলীরে সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, ভোলা সদর থানা বিএনপির জয়েন্ট সেক্রেটারী ও জেলা বিএনপির সদস্য এবং সাবেক চেয়াাম্যান জামাল উদ্দিন প্রমুখ। প্রচার-প্রচারণায় এদের মধ্যে জাহিদুল হক শুভ এগিয়ে রয়েছেন। জাহিদুল হক শুভকে আলীনগর ইউনিয়নের পাশে পেয়ে জনগণ মুখরিহ হয়ে উঠেছে। তাকে নিয়ে ইউনিয়নের জনগণ বিভিন্ন প্রকার স্লোগান দিচ্ছে।
আলীনগর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে যে কে’জন প্রার্থীর ভোট যুদ্ধে অংশগ্রহনের সম্ভাবনা বেশী তাদের মধ্যে আওয়ামীলীগ প্রার্থী মোঃ বশির আহম্মদ ও বিএনপি দলীয় প্রার্থী মোঃ জামাল উদ্দিন অনেকটা নিশ্চিত। অবাক করার মত বিষয় হচ্ছে আলীনগরের চেয়ারম্যান প্রার্থী জাহিদুল হক শুভ দলীয় মনোনয়নের জন্য যুদ্ধে অবতীর্ন হননি। তিনি স্বতন্ত্র বা নির্দলীয় ভাবে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। তার মতে আলীনগরে সর্ব দলের মানুষ রয়েছেন, যারা দল-মত নির্বিশেষে তাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন। সবাই যখন দলীয় মনোয়ন আর আনুকূল্য লাভের জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন তখন তিনি নির্দলীয় ভাবে নির্বাচন করার কথা ভাবছেন কেন তা জানতে গিয়ে জানা গেছে, আলীনগর ইউনিয়নে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে নির্বাচিত হবার জন্য যা যা প্রয়োজন তার সবই আছে তার। পারিবারিক ঐতিহ্য, জন সমর্থন, গ্রহনযোগ্যতা, এবং আর্থিক সঙ্গতি কোনটারই অভাব নেই তার। সব মিলিয়ে বিজয়ী হবার মত পর্যায়ে আছেন বলে দলীয় মনোনয়ন তার কাছে তেমন কোন বিষয় নয়।
প্রতিপক্ষ প্রার্থী মোঃ বশির আহম্মদ বর্তমান চেয়ারম্যান হিসেবে বিগত সময়ে যে ভুল ত্রুটিগুলো করেছেন তাকে যদি ইস্যু করা যায় আর সাবেক চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিনের বিএনপি প্রার্থী হিসাবে প্রভাব বিস্তার করতে অক্ষমতায় ভোটযুদ্ধে সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী জাহিদুল হক শুভ। সবদিক দিয়ে বৃহস্পতি তার এখন তুঙ্গে। শুভ’র জন্য অপেক্ষা করছে শুভদিন। শুভ যেন শুভ শক্তির প্রতীক। তিনি যেখানে হাত দিয়েছেন সেখানেই সফল হয়েছেন। ব্যর্থতা তাকে ছুঁতে পারেনি। জন্ম নিয়েছেন সৌভাগ্যবান হিসাবে ঐতিহ্যবাহী ভোলার মিয়া বাড়ী পরিবারে। বিবাহ সূত্রে আত্মীয়তার বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন আরেক ঐতিহ্যবাহী পরিবারে। যে যেভাবেই প্রচারণা চালিয়ে যাক না কেন তবে বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ বশির আ্হমেদ ও জাহিদুল হক শুভ’র মধ্যেই হাড্ডা-হাড্ডি প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে এমনটাই ধারণা করছেন সাধারণ জনগণ।