অর্থ ও বাণিজ্য জাতীয় ঢাকা

সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা নিশ্চিত করতে ওয়ালটনের নানা উদ্যোগ

index নিজস্ব প্রতিবেদক,হটনিউজ২৪বিডি.কম: বিক্রয়োত্তর সেবার মান উন্নত ও গতিশীল করার উপর গুরুত্ব দিয়েছে ওয়ালটন। আরো বিস্তৃত হচ্ছে সার্ভিস নেটওয়ার্ক। আধুনিক যন্ত্রপাতি দিয়ে সুসজ্জিত হচ্ছে প্রতিটি সার্ভিস পয়েন্ট। সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী ও টেকনিশিয়ানদের নিয়মিত প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। খুব শিগগীরই আসছে ভ্রাম্যমান সেবা। সর্বোপরি গ্রাহক সন্তুষ্টিকেই প্রাধান্য দিচ্ছে ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ।
জানা গেছে, ওয়ালটন ব্র্যান্ডের পণ্যের উৎপাদন ও বিক্রি বৃদ্ধি পাওয়ায় সন্তুষ্ট ওয়ালটন গ্রুপ। এ অবস্থায় আরো বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে বিক্রয়োত্তর সেবাকে। বাংলাদেশে ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল পণ্যে একমাত্র ওয়ালটনেরই রয়েছে আইএসও সনদ পাওয়া আধুনিক সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। কাজ করছেন ১৫ শ’রও বেশি প্রকৌশলী ও টেকনিশিয়ান। এবার ওই সিস্টেমে যুক্ত হচ্ছে আরো কিছু নতুনত্ব।
এ বিষয়ে ওয়ালটন গত মঙ্গলবার শেষ করলো দুদিনের বিশেষ কর্মশালা। কর্মশালায় জানানো হয়, গ্রাহকদের দোর গোড়ায় বিক্রয়োত্তর সেবা পৌঁছে দিতে বর্তমানে সারা দেশে চালু রয়েছে ৬০টি সার্ভিস পয়েন্ট। শীঘ্রই চালু হচ্ছে আরো ১০টি সার্ভিস পয়েন্ট। সেইসঙ্গে নতুন চমক হিসেবে থাকছে ভ্রাম্যমান পরিসেবা। এজন্য অত্যাধুনিক প্রযুক্তি, যন্ত্রপাতি দিয়ে সুসজ্জিত করা হচ্ছে ১৮টি গাড়ি। যেগুলো বিভিন্নস্থানে গিয়ে গ্রাহকদের কাছে সেবা পৌছে দেবে। সেবা কাজে যুক্ত করা হচ্ছে আরো বেশি সংখ্যক টেকনিশিয়ানদের। সার্ভিস সেন্টারের পাশাপাশি রয়েছে কল সেন্টার ও প্রশিক্ষিত কাস্টমার কেয়ার এক্সিকিউটিভ। বর্তমানে গ্রাহকরা পণ্য সম্পর্কে যেকোন সমস্যা ১৬২৬৭-এ কল করে জানাতে পারছেন।
রাজধানীর উত্তরায় আয়োজিত ওই কর্মশালায় অংশ নেন ওয়ালটনের উত্তরা জোনের বিক্রয় প্রতিনিধি ও পরিবেশকগণ। ওয়ালটন সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (ডঝগঝ) এর উত্তরা শাখা দুই দিনব্যাপী এই কর্মশালার আয়োজন করে। সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের উর্ধতন কর্মকর্তারা এর মাধ্যমে গ্রাহকদের চাহিদা সম্পর্কে অবগত হন। চাহিদা বিশ্লেষণ করে নেয়া হবে যুগোপযোগী পদক্ষেপ।
কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের পরিচালক এসএম মাহবুবুল আলম, নির্বাহী পরিচালক (এইচআরএম, পলিসি ও এডমিন) এসএম জাহিদ হাসান, নির্বাহী পরিচালক (পিআর এন্ড মিডিয়া) মোঃ হুমায়ুন কবীর, অপারেটিভ ডিরেক্টর লে. কর্নেল (অব.) এম এ কাদের, অপারেটিভ ডিরেক্টর ও আইটি বিভাগের প্রধান আরিফুল আম্বিয়া, সিনিয়র এডিশনাল ডিরেক্টর মতিউর রহমান, সিনিয়র ডেপুটি ডিরেক্টর ও ওয়ালটন সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের প্রধান মোঃ নিয়ামুল হক, জনপ্রিয় চিত্রনায়ক আমিন খান প্রমুখ।
কর্তৃপক্ষ জানায়, পরিবেশক ও সার্ভিস প্রদানকারীদের মধ্যে কাজের সমন্বয় ও সম্পর্ক  উন্নয়নে এই উদ্যোগ। ডঝগঝ এর প্রধান কর্মকর্তা মোঃ নিয়ামুল হক বলেন, অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও যন্ত্রপাতির সমন্বয়ে সম্পূর্ণ ব্র্যান্ড নিউ খুচরা যন্ত্রাংশের মাধ্যমে গ্রাহকদের দেয়া হচ্ছে উচ্চমানের বিক্রয়োত্তর সেবা। দ্রুত ও নিখুঁত বিক্রয়োত্তর সেবা নিশ্চিত করার উপর জোর দিয়েছেন তারা।
আরিফুল আম্বিয়া দাবি করেন, ওয়ালটনের মতো এত বেশি সংখ্যক সার্ভিস পয়েন্ট ও আইএসও সনদপ্রাপ্ত সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম বাংলাদেশে আর কারো নেই। নিয়মিত ভিডিও কনফারেন্স ও টিউটোরিয়ালের মাধ্যমে সার্ভিস কার্যক্রমের সাথে সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী ও টেকনিশিয়ানদের কর্মদক্ষতা আরো বাড়ানো হচ্ছে।
জানা গেছে, গ্রাহকদের দ্রুত বিক্রয়োত্তর সেবা নিশ্চিত করতে শীঘ্রই চালু করা হবে অন-লাইন সুবিধা। সেক্ষেত্রে গ্রাহকরা ঘরে বসেই অন-লাইনে বিক্রয়োত্তর সেবার জন্য আবেদন করতে পারবেন। ট্র্যাকিং নাম্বারের মাধ্যমে সার্ভিস সেন্টারে পাঠানো পণ্যের সবশেষ অবস্থা জানতে পারবেন।
বর্তমানে এসএমএসের মাধ্যমে গ্রাহকরা পূরণ করতে পারছেন ওয়অরেন্টি কার্ড। এছাড়া প্রতিটি সার্ভিস পয়েন্টে রয়েছে ফিডব্যাক বক্স। কারো কোনে অভিযোগ বা পরামর্শ গ্রহণ করা হচ্ছে। প্রতি সপ্তাহে সেগুলো গুরুত্বের সঙ্গে বিশ্লেষণ করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।
উল্লেখ্য, ফ্রিজ ও এয়ারকন্ডিশনারের ক্ষেত্রে ছয়মাসের রিপ্লেসমেন্ট ওয়ারেন্টি দিচ্ছে ওয়ালটন। সিআরটি ও এলইডি টেলিভিশনেও রয়েছে  শর্ত সাপেক্ষে ছয়মাসের রিপ্লেসমেন্ট সুবিধা। ফ্রিজের কম্প্রেসারে ৮ বছর এবং এলইডি টেলিভিশনের প্যানেলে দেয়া হচ্ছে ২ বছরের সার্ভিস ওয়ারেন্টি।