অপরাধ খুলনা

মাগুরা পলেটেকনিক ইনস্টিটিউটে হামলা ভাংচুর সড়ক অবরোধ

images (7)মাগুরা প্রতিনিধি :অকৃতকার্য ও বহিস্কৃত ৫ ছাত্রকে পরীক্ষা পাশের অবৈধ দাবীতে মাগুরা পলিটেকনিক গতকাল শনিবার ইনস্টিটিউটে হামলা ভাংচুর করেছে বিক্ষুব্ধ ছাত্র-ছাত্রীরা। সৃষ্ট পরিস্থিতিতে ইনস্টিটিউটের সব পরীক্ষা ও ক্লাস অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।ইনস্টিটিউটের রেফ্রিজারেশন ও এয়ার কন্ডিশন বিভাগের শিক্ষক আব্দুর রহিম আব্বাসীসহ প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এই প্রতিষ্ঠানের রেফ্রিজারেশন এন্ড এয়ার কন্ডিশন বিষয়ের তৃতীয় পর্বের ছাত্র আব্দুল্লাহ আল মামুন, প্রথম পর্বের ছাত্র সোহেল হাসান সবুজ, আল আমিন ও আরাফাত হোসাইন একটি করে বিষয়ে চুড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ থেকে বিরত থাকে। অনিক বিশ্বাস নামে একই ট্রেডের অপর এক ছাত্র নকলের দায়ে ১ বছরের জন্য বহিস্কৃত হয়েছে। যে কারণে চুড়ান্ত ফলাফলে তারা অকৃতকার্য হিসাবে চিহ্নিত হয়েছে। যেহেতু এসব পরীক্ষার ফলাফল শিক্ষকরা নিয়ন্ত্রন করেন এ কারণে ফলাফল ঘোষনার পর থেকেই অকৃতকার্য ওই ৫ শিক্ষার্থী তাদেরকে পাশ করানোর জন্য শিক্ষকদেরকে চাপ দিয়ে আসছিল। যা শিক্ষকদের পক্ষে সম্ভব না হওয়ায় তারা গতকাল শনিবার তারা ক্যাম্পাসে ‘ঘুষ না দেয়ায় তাদের ফেল করানো হয়েছে’ এমন অভিযোগ তুলে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিক্ষুব্ধ পরিবেশ তৈরী করে ও হামলা ভাংচুর শুরু করে। হামলা ভাংচুর চলাকালে প্রতিষ্ঠানের অন্তত ৩০টি ধরন্ত পেপে গাছ তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কেটে ফেলে। এছাড়া জানালার কাচ ভাংচুরসহ ইনস্টিটিউটের সামনে ঝিনাইদহ-মাগুরা মহাসড়ক অবরোধ করে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে।

তবে অভিযুক্ত ছাত্ররা জানিয়েছে, ট্রেডের শিক্ষক দীন ইসলাম অর্থের বিনিময়ে ছাত্র-ছাত্রীদের পরীক্ষায় কৃতকার্য করে আসছেন। তারা টাকা দিতে না পারায় পরীক্ষায় অনুপস্থিত দেখিয়ে অকৃতকার্য করেছেন। বিষয়টি অধ্যক্ষকে জানানো হয়েছে কিন্তু তিনি কোন ব্যবস্থা নেন নি। যে কারনে সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীরা এই বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন।

এবিষয়ে ইনস্টিটিউটের ননটেক বিভাগের প্রধান দীন ইসলাম বলেন, ‘বিষয়টি রেফ্রিজারেশন এন্ড এয়ারকন্ডিশন বিভাগের। এখানে আমার কোন সংশ্লিষ্টতা নেই। উল্লেখিত অকৃতকার্য ছাত্ররা অবৈধ দাবী তোলায় আমি বিষয়টির প্রতিবাদ করে তাদের নিবৃত্ত করার চেষ্টা করেছি। একারনে এখন তারা আমাকে অভিযুক্ত করছে। ’

ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী আয়ুব হোসেন বলেন, ‘ উদ্ভুত পরিস্থিতিতে কলেজের সকল পরীক্ষা ও ক্লাস অনির্ষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে। পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত।’

ইমাম জাফর