ঢাকা প্রধান খবর

মাথা পেতে নেব জনরায় -আজমত

GazipurAzmatUllahগাজীপুর প্রতিনিধি:গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র পদপ্রার্থী আজমত উল্লা খান বলেছেন, জনগণ যে রায় দেবে, তা তিনি মেনে নেবেন।তবে জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী বলেও জানিয়েছেন টঙ্গী পৌরসভার মেয়র হিসাবে ১৮ বছর দায়িত্ব পালন করে আসা এই নেতা।শনিবার  ভোট শুরুর পর টঙ্গীর লিটল ফ্লাওয়ার প্রি ক্যাডেট স্কুলে ভোট দেন আজমত উল্লা। তার প্রতীক দোয়াত-কলম।পরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “আমি নির্বাচনে দাঁড়িয়েছি জনগণের জন্য। নির্বাচনে জয়ী হতে পারলে আমি জনগণের জন্যই কাজ করব। তবে জনগণ যাকেই নির্বাচিত করুক, আমি তা অবনত মস্তকে মেনে নেব।”টঙ্গী পৌরসভার মেয়র হিসাবে দায়িত্ব পালনের সময় এলাকার বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের কথা উল্লেখ করে আজমত বলেন, “টঙ্গী ছিল বাংলাদেশের অন্যতম দুর্নীতিমুক্ত ও স্বচ্ছ পৌরসভা… আমার বিশ্বাস আল্লাহ আমাকে বেইজ্জত করবেন না।বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রের যে খবর তিনি পেয়েছেন তাতে সব জায়গায় ‘আন্তরিকতাপূর্ণ’ পরিবেশে ‘সুষ্ঠু’ নির্বাচন হচ্ছে বলেই মন্তব্য করেন ক্ষমতাসীন দল সমর্থিত এই প্রার্থী।এ নির্বাচনে আজমতের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ১৮দল সমর্থিত প্রার্থী এম এ মান্নান ভোট দেন সালনা সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে।প্রায় ৩৩০ বর্গ কিলোমিটারের গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের এটিই প্রথম নির্বাচন। প্রধান দুই দল সমর্থিত দুই প্রার্থী ছাড়াও নাজিম উদ্দিন আহমেদ, মেজবাহ উদ্দিন রুবেল সরকার, আমান উল্লাহ ও রীনা সুলতানা মেয়র পদে এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪৫৬জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১২৮জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ সিটিতে মোট ভোটার ১০ লাখ ২৬হাজার ৯৩৮ জন।