বিনোদন

জানা-অজানায় সালমানের নতুন প্রেমিকা লুলিয়া

Untitled-1রোমানিয়ান সুন্দরী লুলিয়া ভেঞ্চু

সালমান খানকে নিয়ে মুখরোচক গল্পের অভাব নেই বলিউড পাড়ায়। গুজব বাদশাহর এবারের গুজবের বিষয়ও যথারীতি প্রেম। জানা গেছে, বত্রিশ বছর বয়সী রোমানিয়ান সুন্দরী লুলিয়া ভেঞ্চুর সঙ্গে নতুন প্রেম পর্ব শুরু করেছেন ৪৮ বছর বয়সী এই বলিউড তারকা।

তবে সম্পূর্ণ গোপনীয়তায় এ প্রেমের সম্পর্ক লালন করছেন সালমান খান। সম্প্রতি প্রেমিক সালমানের টানে নিজ দেশ ছেড়ে ভারতে বসবাস শুরু করেছেন লুলিয়া। বর্তমানে বান্দ্রার কার্টার রোডের একটি অ্যাপার্টমেন্টে সালমান খানের বাবা-মায়ের সাথে থাকছেনও এই রোমানিয়ান সুন্দরী।

জানা গেছে, এই অ্যাপার্টমেন্টটি লুলিয়ার নামে কিনে দিয়েছেন সালমান খান। সালমানের এই রোমান সুন্দরীর কিছু তথ্য এবার জানা যাক।
অ্যালবা লুলিয়ার জন্ম রোমানিয়ার ইয়াসি শহরে। ইয়াসি রোমানিয়ার সাংস্কৃতি সভ্যতার রাজধানী হিসেবে পরিচিত। এ শহরের জনসংখ্যা তিন লাখের নিচে। তাই লুলিয়ার জন্য তার এই ছোট্ট শহরের সৌন্দর্য এবং সংস্কৃতিকে উপভোগ করা খুব একটা কষ্টকর হয়নি।
মাত্র ১৫ বছর বয়সে টেলিভিশনের উপস্থাপিকা হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেন লুলিয়া। তবে ক্যারিয়ারের পাশাপাশি নিজের পড়াশুনাও চালিয়ে গেছেন তিনি। আইন বিভাগে ডিগ্রি নিয়ে শেষ করেছেন পড়াশুনা।
২০০৬ সালে ইয়াসি থেকে রোমানিয়ার রাজধানী বুচারেস্টে চলে আসেন লুলিয়া। সেখানে তিনি তার ক্যারিয়ারের জন্য ভালো ট্রেনিং করেন। পরবর্তীতে টিভি অনুষ্ঠানের উপস্থাপিকা এবং সংবাদ বুলেটিন উপস্থাপিকা হিসেবে ভালো সুনাম অর্জন করেন।
তবে দর্শকদের কাছে এবং মিডিয়া জগতে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেন টেলিভিশন শো ‘ড্যান্সিং উইথ দ্যা স্টারস’ (রোমানিয়ান ভার্শন) এর মাধ্যমে।
বুচারেস্টে ট্রেনিংরত অবস্থায় ম্যারিয়াস মগা নামের একজন পপুলার মিউজিশিয়ানের সাথে পরিচয় হয় লুলিয়ার। পরিচয়ের খুব অল্প দিনের ব্যবধানে ম্যারিয়াস এবং ইলুলিয়ার মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।
২০১১ সালে ‘এক থা টাইগার’ সিনেমার শুটিংয়ের জন্য আয়ারল্যান্ডের রাজধানী ডাবলিনে আসেন সালমান খান। ম্যারিয়াস মগাকে আগে থেকেই চিনতেন তিনি।
ম্যারিয়াসও তখন লুলিয়ার সাথে ডাবলিনে ছিলেন। ম্যারিয়াস ‘এক থা টাইগার’ এর শুটিং সেটে তার প্রেমিকা লুলিয়াকে নিয়ে আসেন। সেখানেই প্রথম সালমান খান লুলিয়াকে দেখেন।
ওই বছরেই লুলিয়াকে নিয়ে ছুটিতে ভারতে আসেন ম্যারিয়াস। তবে সেই ট্রিপে তারা সালমানের সাথে দেখা করেছিলেন কি না তা জানা যায়নি।
লুলিয়া এবং ম্যারিয়াসের মধুর সম্পর্ক খুব বেশি দিন টেকেনি। ২০১২ সালে রোমানিয়ার এই সোনালি জুটির বিচ্ছেদ হয়। সালমান খান হাতছাড়া করেননি এ সুযোগ।
ঠিক তখনই লুলিয়ার কাছে ছুটে গেছেন তাকে সান্ত্বনা জানাতে। ভালো বন্ধুত্বের এক পর্যায়ে দেখা যায়, তাদের মধ্যে ভালোবাসার সম্পর্ক দানা বেঁধেছে। যে ভালোবাসার সম্পর্ক আজও আমাদের আর অজানা নেই এখন।